fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

রনডিহা জলাধারে তলিয়ে যাওয়া ইঞ্জিনিয়ারিং ছাত্রের মৃতদেহ উদ্ধার 

জয়দেব লাহা, দুর্গাপুর:- রনডিহা জলাধারে তলিয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং ছাত্রের মৃতদেহ উদ্ধার হল। মৃতের নাম শুভজিৎ ঘটক (২৫)। সোমবার বিকালে বুদবুদের রনডিহা জলাধার থেকে প্রায় ৫ কিলোমিটার নিম্নতীরবর্তী এলাকায় মৃতদেহ উদ্ধার হয়। মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায় বুদবুদ থানার পুলিশ। লকডাউনে রনডিহা জলাধারে অবাধ আনাগোনায় নজরদারি নিয়ে উঠল প্রশ্ন। পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, মৃত ছাত্রের নাম শুভজিৎ ঘটক দুর্গাপুরের গোপালমাঠের বাসিন্দা।

ঘটনায় জানা গেছে,  রবিবার বিকালে ৫ বন্ধু মিলে রনডিহা জলাধারে বেড়াতে এসেছিল। সম্প্রতি প্রাক্ বর্ষার বৃষ্টির দরুন জলাধারের জলরাশি বেড়ে যাওয়ায় লকগেট কিছুটা খোলা ছিল। ফলে জলস্রোতও ছিল। গার্ডওয়ালের ওপর চলাফেরার সময় আচমকা জলের স্রোতে পড়ে যায় ওই যুবক।

খবর পেয়ে জলাধারের পাশে থাকা কয়েকজন মৎস্যজীবি খোঁজাখুজি শুরু করে। খবর পেয়ে ছুটে আসে স্থানীয় পঞ্চায়েত প্রধান ও  বুদবুদ থানার পুলিশ। এদিন অন্ধকার নেমে আসায় তল্লাশি অভিযান চালানো যায়নি। সোমবার সকাল থেকে পুনরায় পুলিশের উদ্যোগে স্থানীয় মৎস্যজীবিরা জাল নিয়ে তল্লাশি শুরু করে। এদিন দুপুর পর্যন্ত খোঁজ না পাওয়ায় উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ে তলিয়ে যাওয়া ছাত্রের পরিবারের লোকজন।

দুপুর নাগাদ উদ্ধার কাজে নামে সিভিল ডিফেন্সের কর্মীরা। এদিকে বিকাল নাগাদ রনডিহা থেকে প্রায় ৫ কিলোমিটার নিম্নতীরবর্তী কসবা ভাগলুই ঘাটে মৃতদেহ ভাসতে দেখে স্থানীয় বাসিন্দারা। খবর পেয়ে রনডিহা থেকে জলপথে নৌকা নিয়ে উদ্ধার কাজে যায় সিভিল ডিফিন্সের কর্মীরা। মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়। লকডাউনের মধ্যে  রনডিহা জলাধার অবাধ আনাগোনায় নজরদারি নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। স্থানীয় বিজেপি নেতা গৌতম চক্রবর্তী জানান,” লকডাউনে নজরদারি নেই। সন্ধ্যার অন্ধকার নামলেই রনডিহা জলাধার এলাকায় বহিরাগতদের অবাধ আনাগোনা। মদের আসর বসে। পুলিশ ও প্রশাসনের নজরদারি নেই।”

চাকতেঁতুল পঞ্চায়েত প্রধান অশোক ভট্টাচার্য্য জানান,” নজরদারির বিষয়টি পুলিশ ও ব্লক প্রশাসনকে জানিয়েছি।” এসিপি(কাঁকসা) শ্বাশতী শ্বেতা সামন্ত জানান,” মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। ওই এলাকায় মোবাইল টহলের ব্যাবস্থা করা হচ্ছে।”

 

Related Articles

Back to top button
Close