fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

করোনা আবহে স্বাস্থ্য পরিষেবায় অনন্য ভূমিকা রাখছে বগুলা গ্ৰামীণ হাসপাতাল

নিজস্ব সংবাদদাতা, বগুলা: দেশজুড়ে করোনার ঘনঘটা। করোনা আবহে স্বাস্থ্য পরিষেবায় অনন্য ভূমিকা রাখছে বগুলা গ্ৰামীণ হাসপাতাল। বর্ধিত বগুলা এলাকার স্বাস্থ্য পরিষেবায় বগুলা গ্ৰামীণ হাসপাতালের ভূমিকা অপরিসীম। ৬ জন ডাক্তার, ৭ জন নার্স, ১৬ জন গ্ৰুপ ডি স্টাফ সহ ৩০ আসন বিশিষ্ট বগুলা গ্ৰামীণ হাসপাতালের সাচ্ছন্দ পরিষেবায় উপকৃত এলাকার সর্বস্তরের মানুষ। সুচিকিৎসা ও জনস্বাস্থ্য বিষয়ক পরিষেবা প্রদানে এলাকার জনমানসে যথেষ্ট সুনাম আছে বগুলা গ্ৰামীণ হাসপাতালের। কর্তব্যরত ডাক্তার ও নার্সদের সেবা পরায়ণ ব্যবহার, প্রতিনিয়ত রোগী সহ তাদের পরিবার কে মুগ্ধ করে। সীমিত সংখ্যক সেবাকর্মী নিয়েও উন্নত পরিষেবা প্রদানে জেলার যে কোন গ্ৰামীণ হাসপাতালকে টেক্কা দেওয়ার ক্ষমতা রাখে বগুলা গ্ৰামীণ হাসপাতাল। পরিকাঠামোগত উন্নতি ঘটালে পারলে আগামী দিনে বগুলা গ্ৰামীণ হাসপাতাল কে নিয়ে গর্ব করার মতো জায়গায় পৌছাবে।

কথা হচ্ছিল বগুলা গ্ৰামীণ হাসপাতালের সুপার ডাঃ বীরেন মজুমদারের সঙ্গে। তিনি জানালেন, রোগীকে সুস্থ করার ক্ষেত্রে সর্বদা আমরা নিজেদের সর্বশক্তি দিয়ে চেষ্টা করে থাকি। একজন সেবা কর্মীর পবিত্র কর্তব্য ই হল অসুস্থ্য কে সুস্থ্য করে তোলা। আমরা সে ক্ষেত্রে কর্তব্য পালনে কোন কিছুর সঙ্গে আপস করিনা। আমরা সাধ্যমতো চেষ্টা করি। তবে অনেক সময় পরিকাঠামো গত সমস্যার জন্য এবং চিকিৎসা বিষয়ক অনেক কিছুরই ঘাটতি থাকায়, বাধ্য হতে হয়। সিরিয়াল রোগীর ক্ষেত্র জেলা হাসপাতালে রেফার করতে।আরো একটি সমস্যা, রোগীর পরিবারের পক্ষ থেকে কখনো কখনো আমাদের কে ফেস করতে হয়, আমাদের কে ভুল বোঝে এবং এই ঘটনায় তাদের রোষানলে পড়তে হয় ঠিকই, তবে কাউন্সিলিং এর মাধ্যমে শেষপর্যন্ত পরিস্থিতি স্বাভাবিক ও হয়ে ওঠে দ্রুত।

করোনা আবহে এলাকার সচেতনশীল নাগরিক দের উদ্দেশ্যে ডাক্তার বাবুর বিশেষ বার্তা, মাস্ক ব্যবহার, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা এবং সারা দিনে একাধিক বার হ্যান্ড স্যানেটাইস। এই প্রক্রিয়ায় শরীর এবং স্বাস্থ্য অবশ্যই ভালো থাকবে এবং বর্তমান পরিস্থিতি মোকাবিলা সম্ভব।

Related Articles

Back to top button
Close