fbpx
গুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বিজেপি করাই ‘অপরাধ’, আমফানের ক্ষতিপূরণ না পাওয়ার অভিযোগ সীমান্তবাসীদের

শ্যাম বিশ্বাস, উওর ২৪ পরগনা: বিজেপি করার ‘অপরাধ’-এ সীমান্তের জিরো পয়েন্ট লাগোয়া এলাকায় আমফানের ক্ষতিপূরণ মিলছে না বলে অভিযোগ। ক্ষতিপূরণের দাবিতে সরব হয়েছেন এলাকাবাসী। জানা গিয়েছে, বসিরহাট দক্ষিণ বিধানসভার এক নম্বর ব্লকের ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তের কাঁটাতার লাগোয়া এলাকায় একদিকে সীমান্তরক্ষীদের ভারী বুটের আওয়াজ, অন্যদিকে সীমান্তের চোরাচালানকারীদের স্বর্গরাজ্যে আতঙ্ককে সঙ্গী করে ঘোজাডাঙ্গা উত্তরপাড়ায় লাগোয়া বসবাসকারী বেশ কিছু পরিবার।

গ্রামবাসীদের অভিযোগ, তারা বিজেপি করেন, সেই অপরাধের তাদের আমফানের ক্ষতিপূরণ থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে। বাসিন্দাদের আরও অভিযোগ, গত ৩ মাস আগের আমফান ঝড়ে এই সীমান্তের বেশ কিছু পরিবারের ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ঝড়ের তান্ডবে তাদের ঘর বাড়ি ভেঙে যায়। যাদের সামর্থ্য আছে তারা কষ্ট সৃষ্টি মধ্যে দিয়ে আবার নতুন ঘর বেঁধেছে। কিন্তু যাদের সামর্থ্য একেবারেই নেই তাদের মধ্যে এখনও বেশকিছু পরিবার ত্রিপলের নিচে বসবাস করছে।

           আরও পড়ুন: মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান লাইফ সাপোর্টে, তোপ লাগলেন ধনকর

অভিযোগ, একাধিকবার ইটিন্ডা পানিতর পঞ্চায়েত দফতরে আবেদন জানানোর পরেও কোন সুরাহা মেলেনি। এখনো পর্যন্ত ক্ষতিপূরণের সিকি ভাগও ঢোকেনি তাদের পকেটে। কারণ হিসেবে তাঁরা জানাচ্ছেন, বিজেপি করাই তাদের একমাএ অপরাধ। তাই ক্ষতিপূরণ মিলছে না এখানকার বাসিন্দাদের। কিন্তু শাসকদলের ছত্রছায়ায় থেকে অনেকেই ক্ষতি না হওয়ার সত্তেও আমফানের ক্ষতিপূরণের টাকা পেয়েছেন।
জানান, এই গ্রামে অসহায় দরিদ্র পরিবারগুলি কোনরকমে দিন যাপন করছে। এখনোও ত্রিপোলের তলায় রাত কাটছে কয়েকটি পরিবারের। আর দিনের বেলায় সীমান্তের কাঁটাতারের উপরে মাঠে চাষ বাস করে কোনরকমে তারা সংসার চালাচ্ছে।

তবে এই অভিযোগ অস্বীকার করে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের দাবি, এই এলাকায় সবাই আমফানের ক্ষতিগ্রস্ত টাকা পেয়েছে। যে অভিযোগ করা হচ্ছে সম্পূর্ণ মিথ্যা অভিযোগ। বিজেপি বসিরহাট জেলা সাংগঠনিক সভাপতি তারক ঘোষ বলেন সত্তিকারের ক্ষতিগ্রস্তরা ক্ষতিপূরণ পায়নি, ক্ষতিপূরণ পাচ্ছে যাদের ক্ষতি হয়নি । এই ক্ষতিগ্রস্ত মানুষদের একটাই অপরাধ এরা আমাদের বিজেপি দলটা করে।

Related Articles

Back to top button
Close