fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গবিজ্ঞান-প্রযুক্তিহেডলাইন

বিরল সার্জারি কলকাতায়, পেটে প্রতিস্থাপন মাথার খুলি, পুজোর আগে ফের মস্তিষ্কে প্রতিস্থাপন

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: এটি কোনও রূপকথার গল্প নয়। যেখানে কাল্পনিক অনেক কিছুই ঘটতে আমরা দেখতে পারি। কিন্তু এটি একেবারেই প্রকৃত বাস্তব ঘটনা। আর এই বিরল ঘটনার সাক্ষী থাকল মহানগর কলকাতা।

লকডাউনের বিরল অস্ত্রোপচার শহরে। কোমা থেকে বাঁচাতে খুলে নেওয়া হয়েছে মাথার খুলি। ৯০ দিনের জন্য তার ঠিকানা পেট! পুজোর আগেই ফের তা বসিয়ে দেওয়া হবে যথাস্থানে। বর্তমান সময়ে দাঁড়িয়ে এহেন অস্ত্রোপচার যথেষ্ট ঝুঁকিপূর্ণ বলেই জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

দীর্ঘদিন ধরেই মাথাব্যথা ভবানীপুরের বাসিন্দা বছর ৪২ এর অপালা মিত্রর। করোনা আবহে মাথাব্যথা দ্বিগুণ হয়। তখনও বুঝতে পারেননি কী হয়েছে। অপালার কথায়, “সাধারণ মাথা ব্যথা ভেবে ওষুধ খেতাম। সামান্য সময়ের জন্য কমতো। আবার যে কে সেই।” আচমকাই একদিন বাড়িতে সংজ্ঞাহীন হয়ে পরেন তিনি। ১৫ মে নিয়ে যাওয়া হয় পার্ক সার্কাসের ইন্সটিটিউট অফ নিউরোসায়েন্সে। মাথার অ্যাঞ্জিওগ্রাফিতে ধরা পরেছিল ভয়ংকর ছবি। দেখা গিয়েছিল, মস্তিষ্কের ভেতর যে ধমনী দিয়ে রক্ত চলাচল করে তা দুর্বল হয়ে বেলুনের মতো ফুলে উঠেছে। সাবার্কনয়েড হেমারেজ আর ইন্ট্রাসেরিব্রাল হেমারেজ একই সঙ্গে ধরা পরে। এমন ক্ষেত্রে বাঁচার সম্ভাবনা ১ শতাংশেরও কম। চিকিৎসকের কথায়, মস্তিষ্কে ব্লাড ভেসেল ফেটে অপালার সাবার্কনয়েড হেমারেজে দেখা গিয়েছিল তা থেকে বাঁচাতে না বাঁচাতেই ইন্ট্রাসেরিব্রাল হেমারেজ। কোমায় চলে গিয়েছিল রোগী। টানা ১০ দিন জড় বস্তুর মতো পরেছিল বিছানায়। এদিকে লক ডাউনে সুদূর হায়দরাবাদে স্বামী। মোবাইলে ভিডিও কল করে স্ত্রীকে দেখেছিলেন।

Related Articles

Back to top button
Close