fbpx
আন্তর্জাতিকহেডলাইন

টিকা নেননি ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট বোলসোনারো, জাতিসংঘের অধিবেশনে স্বশরীরে থাকছেন না তিনি

যুগশঙ্খ, ওয়েবডেস্কঃ করোনা মহামারির মধ্যেই জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশন। এতে যোগ দিতে রাষ্ট্রপ্রধানরা নিউইয়র্কে আসছেন। এবারের অধিবেশন উপলক্ষে বিভিন্ন দেশের সরকারপ্রধান ও প্রতিনিধিদের করোনা ভ্যাকসিন নেওয়ার প্রমাণপত্র দেখানোর দাবি জানিয়েছিল নিউইয়র্ক সিটি কর্তৃপক্ষ। তবে জাতিসংঘের নিয়মবিরোধী হওয়ায় সেই দাবি গ্রাহ্য হয়নি। তবে অধিবেশনে উপস্থিত থাকতে পারছেন টিকা না নেওয়া ব্রাজিলিয়ান প্রেসিডেন্ট জাইরো বোলসোনারোও। তবে বাকি সদস্য দেশগুলোর প্রধানমন্ত্রী, রাষ্ট্রপতি বা পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা সশরীরেই উপস্থিত থাকবেন নিউইয়র্কের জাতিসংঘ সদর দফতরে।
করোনার কারণে গত বছরের অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয়েছিল পুরোপুরি ভার্চুয়ালি। এবারও সংক্রমণ পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে না আসায় জাতিসংঘের এক-তৃতীয়াংশ সদস্য দেশ ভিডিওবার্তা পাঠানোর মাধ্যমে অংশ নিতে পারে। প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন নিজেই সশরীরে অধিবেশনে থাকবেন। ক্ষমতাগ্রহণের পর জাতিসংঘে এটাই প্রথমবারের মতো পা রাখতে চলেছেন তিনি।
বৈশ্বিক সংস্থাটির তথাকথিত সম্মান ব্যবস্থা বলছে, অধিবেশন কক্ষে প্রবেশের অর্থ সেই ব্যক্তি টিকা নিয়েছেন। তাই তার আর কোনও প্রমাণপত্র লাগছে না। কিন্তু চিরকালই উলটো পথে হাঁটতে ভালোবাসেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট বোলসোনারো। তাই করোনা টিকা নেননি তিনি। কারণ বোলসোনারো চিরকালই টিকাবিরোধী মনোভাব পোষণ করে এসেছেন।
সম্প্রতি সংস্থাটির মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস বলেছেন, আমরা কোনও রাষ্ট্রপ্রধানকে বলতে পারি না যে, টিকা নেওয়া না থাকলে তিনি জাতিসংঘে প্রবেশ করতে পারবেন না। ম্যানহাটনে অবস্থিত জাতিসংঘের সদরদফতরটি আন্তর্জাতিক ভূমি হিসেবে স্বীকৃত। ফলে সেখানে মার্কিন আইনের বাধ্যবাধকতা প্রযোজ্য নয়। তবে মহামারি প্রশ্নে আগেই স্থানীয় ও জাতীয় নির্দেশনা মেনে চলার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন জাতিসংঘ কর্মকর্তারা।

Related Articles

Back to top button
Close