fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

আমফানের ক্ষত সারিয়ে সুন্দরবনের ইটভাটা শিল্প বাঁচানোর লড়াই

শ‍্যাম বিশ্বাস, উত্তর ২৪ পরগনা: লকডাউন ও আমফানের ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার পর সুন্দরবনের একাধিক ইটভাটা শিল্প বাঁচানোর লড়াই চলছে। বসিরহাট মহকুমার সন্দেশখালি ১ নম্বর ব্লকের ধামাখালি থেকে সরবেড়িয়া পর্যন্ত প্রায় ১২ টি ইটভাটা রয়েছে। সেগুলি লকডাউন ও আমফানের ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার পর স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরতে শুরু করেছে।

এই শিল্পগুলিকে বাঁচানোর লড়াইয়ের ডাক দিয়েছেন সন্দেশখালি ব্লক সভাপতি শেখ শাহাজান। এই শিল্পের সঙ্গে লক্ষাধিক শ্রমিক ও তাঁদের পরিবারের বেঁচে থাকার সম্পর্ক রয়েছে। যাতে এই শিল্পকে বাঁচানো যায় তার সবরকম চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন এই শিল্পের সঙ্গে যুক্ত ব্যবসায়ী থেকে শুরু করে দিনমজুর।

সবমিলিয়ে এই শিল্প বাঁচানোর লড়াইয়ে নেমেছে সুন্দরবণের মানুষরা। এখানকার ইটভাটার তৈরি ইট রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে যেত। কখনও নদীপথে আবার কখনও সড়কপথে সেগুলি বিভিন্ন জায়গায় যেত। এই শিল্পকে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরিয়ে আনতে সবরকম চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন ব্লক সভাপতি শেখ শাহাজান। সন্দেশখালি ভাটা শিল্প বাঁচানোর জন্য সবরকম চেষ্টা করছে সুন্দরবনের মানুষরা।

আমফানের জেরে প্রায় ১ কোটি ৫০ লক্ষ কাঁচা ইট তৈরি করা হয়েছিল ভাটাগুলোতে, যা পুরোপুরি ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে পড়েছে। চরম আর্থিক অনটনের পড়েছে ভাটা শিল্পের মালিকরা। বাংলার বহু প্রাচীন এই ভাটা শিল্প বাঁচাতে সংকল্প নিয়েছেন সুন্দরবনবাসী সঙ্গে সাহায্য করছেন স্থানীয় প্রশাসন।

Related Articles

Back to top button
Close