fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বাড়িতে ঢুকে বিবাহিত মহিলাকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ব্যবসায়ী যুবক

মিলন পণ্ডা, কাঁথি: এক বিবাহিত মহিলাকে জোর করে ধর্ষণের অভিযোগ উঠলো এক আত্মীয় বিরুদ্ধে। ধর্ষিতা মহিলার অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত যুবককে গ্রেফতার করল পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার কাঁথি এক ব্লকের সুবর্ণদিঘী এলাকায়। বৃহস্পতিবার কাঁথি মহিলা থানার পুলিশ অভিযুক্ত শেখ রফিক আলীকে গ্রেফতার পর শুক্রবার অভিযুক্তকে কাঁথি মহকুমা আদালতে তোলা হলে বিচারক তার জামিন নাকচ করে ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন। পুলিশ জানিয়েছে, অভিযুক্ত যুবকের বাড়ি রামনগর থানা মান্দারপুর গ্রামে। ঘটনা প্রকাশ্যে আসার পর গোটা এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই মহিলা পটাশপুরে কসবার বাসিন্দা।দীর্ঘদিন ধরে কাঁথির সুবর্ণদিঘীতে থাকতেন গৃহবধূ সহ তার পরিবারের সদস্যরা। গ্রেফতার রফিক বালির ব্যবসা করতো। গত বুধবার গৃহবধূর শ্বশুরের খোঁজে কাঁথির বাড়িতে যায়। গৃহবধূকে ধর্ষণ করে রফিক বলে অভিযোগ। এ কথা কাউকে জানালে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। এরপর গৃহবধূ তার স্বামী বাড়ি ফিরলে সব কথা জানায়। বৃহস্পতিবার কাঁথি মহিলা থানায় গৃহবধূ অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে নড়েচড়ে বসে পুলিশ। রাতেই অভিযান চালিয়ে পুলিশ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে। পাশাপাশি ধর্ষিতা মহিলার সরকারি হাসপাতালে ডাক্তারি পরীক্ষা করান। যদিও গ্রেফতার রফিক নিজেকে নির্দোষ বলে দাবি করেন।

কাঁথি মহিলা থানার ওসি অনুষ্কা মাইতি বলেন, অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নেমে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ধর্ষিতা মহিলা সরকারি হাসপাতালে ডাক্তারি পরীক্ষা করানো হয়েছে। পুরো ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। এই ঘটনার সঙ্গে অন্য কোন বিষয় জড়িত রয়েছে কিনা সেটাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

Related Articles

Back to top button
Close