fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

‘ওপেন বুক এক্সামে’ই সিস্টেমে স্নাতক ও স্নাতকোত্তরে দেওয়া যাবে পরীক্ষা, জানাল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক:  বাড়ি বসে বই খুলেই স্নাতক ও স্নাতকোত্তরে দেওয়া যাবে পরীক্ষা। ১ থেকে ১৮ অক্টোবরের মধ্যে পরীক্ষা শেষ হবে। করোনা আবহে সমস্ত বিষয়ে অনলাইনেই পরীক্ষা নেওয়া সিদ্ধান্ত নিল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় । পরীক্ষা পদ্ধতি সম্পর্কে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় জানিয়েছে, ক্লাসে যতটুকু পড়ানো হয়েছে তার উপরই পরীক্ষা নেওয়া হবে, অর্থাত্‍ যে বিষয়ে যতটুকু সিলেবাস শেষ হয়েছে সেখান থেকেই করা হবে প্রশ্ন। ‘ওপেন বুক এক্সামে’ই সায় দিল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়।

ইউজিসি’র (UGC) সাম্প্রতিক গাইডলাইন অনুযায়ী, দেশের সমস্ত কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে স্নাতক ও স্নাতকোত্তরের চূড়ান্ত বর্ষের পরীক্ষা নিতেই হবে। সুপ্রিম কোর্টও তাতে সিলমোহর দিয়েছে। সেইমতো এ রাজ্যেও কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে পরীক্ষার তোড়জোড় শুরু হয়। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নির্দেশ দিয়েছিলেন, এক সপ্তাহের মধ্যে সমস্ত পরিকল্পনা ঠিক করার। তা মেনে করোনা আবহে কীভাবে পরীক্ষা নেওয়া হয়, তার রূপরেখা স্থির করতে গত সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের সঙ্গে ভারচুয়াল বৈঠকে বসেছিলেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

সোমবার ভার্চুয়াল বৈঠকে নেওয়া সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ইউজিসি নির্দেশিকা মেনেই ১ অক্টোবর থেকে ১৮ অক্টোবরের মধ্যে অনলাইনে স্নাতক, স্নাতকোত্তরের চুড়ান্ত বর্ষের ছাত্রছাত্রীদের পরীক্ষা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় । ৩১ অক্টোবরের মধ্যেই হবে ফলপ্রকাশ ।

আরও পড়ুন: স্মার্টকার্ড রিচার্জে সমস্যা, দ্রুত সমাধানের আশ্বাস মেট্রোর

সেখানেই ঠিক হয়, অফলাইনে নয়, সর্বত্র অনলাইনেই পরীক্ষা নেওয়া হবে। থাকবে হোম অ্যাসেসমেন্ট। অক্টোবরের ১ থেকে ১৮ তারিখের মধ্যে পরীক্ষা সম্পূর্ণ করতে হবে। অক্টোবর মাসের মধ্যেই প্রকাশ করতে হবে ফলাফল। বিশ্ববিদ্যালয়গুলি চাইলে মৌখিক পরীক্ষার মাধ্যমেও চূড়ান্ত বর্ষের পড়ুয়াদের মূল্যায়ন করতে পারে। প্রত্যন্ত এলাকার পরীক্ষার্থীদের কথা ভেবে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে যে ইন্টারনেটের সমস্যা থাকলে শহরের কাছাকাছি কোনও সেন্টার তৈরি করে সেখানে অনলাইন পরীক্ষা হবে। সেক্ষেত্রে ইন্টারনেট খরচ বহন করবে সংশ্লিষ্ট বিশ্ববিদ্যালয়। ঠিক কীভাবে হবে পরীক্ষা? বুধবার সেই সিদ্ধান্তের কথা জানাল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়। জানিয়ে দেওয়া হয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ কিংবা ই-মেলের মাধ্যমে পড়ুয়ার কাছে প্রশ্নপত্র পাঠানো হবে। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে কলেজে গিয়ে কিংবা অনলাইনে প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে। ছাত্রছাত্রীরা যে কলেজে পড়েন সেই কলেজের অধ্যাপকরা মূল্যায়ন করবেন।ফলপ্রকাশ হবে ৩১ অক্টোবরের মধ্যে।

 

 

 

 

Related Articles

Back to top button
Close