fbpx
আন্তর্জাতিকহেডলাইন

জ্বলছে ক্যালিফোর্নিয়ার বনাঞ্চল, একদিনে পুড়ে ছাই ২৫ মাইল বনভূমি

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: বিপদ যেন কিছুতেই পিছু ছাড়ছে না ২০২০ সালে। প্রায় প্রতিদিনই নিত্যনতুন দূর্ঘটনার সাক্ষী থাকছে গোটা বিশ্ব। আমাজনের দাবানলের স্মৃতি ফেরাচ্ছে ক্যালিফোর্নিয়া। একদিকে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে ২৫ মাইল সবুজ অরণ্য। পুড়েছে বাড়িঘরও। মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১। জানা গিয়েছে, বজ্রবিদ্যুৎ থেকে দাবানলের সূত্রপাত। গত তিন সপ্তাহ ধরেই জ্বলছে বনভূমি। পুড়ছে বাড়ি-ঘর। নিয়ন্ত্রণে আনা যাচ্ছে না আগুন। উলটে ঝোড়ো হাওয়ার দাপটে দ্রুত ছড়াচ্ছে দাবানল। জেরে বুধবার নতুন করে প্রাণ গিয়েছে তিনজনের। সবমিলিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১।

দাবানলের দাপটে বাড়ি ছাড়া প্রায় দশ হাজার মানুষ। গত কয়েকদিনের আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গিয়েছে প্রায় সাতশো বাড়ি। এখনও পর্যন্ত মারা গিয়েছে পাঁচ জন স্থানীয় বাসিন্দা। গোটা ঘটনায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে ট্রাম্পের দেশে। আগুনের এমন ধ্বংস লীলায় ভীতসন্ত্রস্ত গোটা বিশ্ব।

মার্কিন মুলুকের অন্যতম উষ্ণ এলাকা হওয়ায় আগুনের লেলিহান শিখা ছড়িয়ে পড়ছে দ্রুত। আশেপাশের প্রায় ২ লক্ষ মানুষকে নিরাপদে সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার পরও স্বস্তি নেই। দাবানল নিয়ন্ত্রণে কাজ করছেন ১২ হাজার দমকল কর্মী। শুকনো পাতাঘেরা জঙ্গল আগুন ছড়িয়ে পড়ার পক্ষে একেবারে আদর্শ পরিবেশ। তাতেই বিপদ দ্বিগুণ হয়েছে। টেক্সাস, নিউ মেক্সিকো, সান ফ্রান্সিসকো-সহ একাধিক জায়গা থেকে দমকল কর্মী এবং ইঞ্জিন এনেও তা নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছে না। পাশাপাশি এই দাবানলের কারণে ক্যালিফোর্নিয়ার  তাপমাত্রার পারদ চড়েছে অনেকটাই। গত সপ্তাহেই তা ৫৪ ডিগ্রি ছাড়িয়ে রেকর্ড তৈরি করেছিল। তার নেপথ্যে যে এই দাবানল, তা বোঝা গিয়েছে পরে।

গত ১৫ অগস্টের পর থেকে রাজ্য জুড়ে ১২,০০০ এরও বেশি বজ্রপাতে ৫০০ এরও বেশি দাবানল জ্বলে উঠেছে। এর মধ্যে প্রায় দুই ডজন বড় ধরণের অগ্নিকান্ড রাজ্যের বেশিরভাগ সম্পদকে নষ্ট করে দিয়েছে। সানফ্রান্সিসকো, বেরিয়া সহ আশেপাশের বন এবং গ্রামীণ অঞ্চলগুলি বিধ্বস্ত হয়ে গিয়েছে আগুনের দাপটে। গত সাতদিনের দাবানলের কারণে ১,১২০ বর্গমাইল (২,৯০০বর্গকিলোমিটার) বনাঞ্চল পুড়ে গিয়েছে।ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণও বিস্তর। এই দাবানলের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ক্যালিফোর্নিয়ার প্রাচীনতম পার্ক, বিগ বেসিন রেডউডস, পার্কের সদর দফতর এবং ক্যাম্পের মাঠের প্রাচীন রেডউড গাছ। আগুন থেকে নির্গত কালো ধোঁয়া এই অঞ্চলের বাতাসের গুণমানকে আরও বিপজ্জনক করে তুলেছে। যা সাধারণ মানুষকে ঘরের ভিতরে থাকতে বাধ্য করছে। সবমিলিয়ে দমবন্ধকর পরিস্থিতি গোটা ক্যালিফোর্নিয়া জুড়ে।

আরও পড়ুন: রেকর্ড করে দেশে এক লক্ষের পথে করোনায় দৈনিক সংক্রমণ, বাড়ল মৃত্যুর হারও

গত বছরের মাঝামাঝি সময়ে অস্ট্রেলিয়ার ভিক্টোরিয়া, নিউ সাউথ ওয়েলসের বনাঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছিল ভয়াবহ দাবানল। কত প্রাণী যে তাতে ঝলসে গিয়েছে, তার হিসেব বোধহয় এখনও ঠিকঠাক করে ওঠা সম্ভব হয়নি। অগ্নিতাপ অগ্রাহ্য করেই জঙ্গল থেকে কোয়ালা, ক্যাঙ্গারু-সহ অনেক প্রাণীকে উদ্ধার করে আনার সাহস দেখিয়েছিলেন বন্যপ্রাণপ্রেমীরা। তার আগে বিশ্ববাসীর মনে আতঙ্ক ছড়িয়েছে আমাজনের দাবানল। ক্যালিফোর্নিয়ার আগুন সেই স্মৃতিগুলোয় ফের উসকে দিচ্ছে।

 

 

 

 

 

Related Articles

Back to top button
Close