fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

জাতিভেদ প্রথার বলি! আত্মঘাতী প্রেমিক প্রেমিকা

সাথী প্রামানিক, পুরুলিয়া: প্রেমের সম্পর্ক দুই পরিবার না মানায় আত্মঘাতী হলেন প্রেমিক প্রেমিকা। জাতপাতের গেরোয় মর্মান্তিক যুগল আত্মহত্যার ঘটনাটি পুরুলিয়া জেলার কেন্দা থানার ভান্ডারপুয়াড়া গ্ৰামে ঘটেছে। সোমবার সকালে একই ওড়নায় গলায় ফাঁস দেওয়া ঝুলন্ত দেহদুটি উদ্ধার করল পুলিশ। মৃত যুগলের নাম অনুপ রাজোয়াড় ও নয়নমণি মন্ডল।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, সোমবার সকালে কেন্দা থানার নাড়ুডি গ্ৰামের কাছে কাঁসাই নদীর তীরে একটি করঞ্জ গাছের ডালে ঝুলন্ত দেহ দুটি উদ্ধার করা হয়। স্থানীয় মানুষ জানান, ভান্ডারপুয়াড়া গ্ৰামের বছর উনিশের তরুনীটির সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল একুশ বছর বয়সী যুবকটির। কিছুদিন আগে যুবকটি চেন্নাইয়ে কাজ করতে গিয়েছিলেন। তখনও দুজনের নিয়মিত যোগাযোগ ছিল। এদিকে ভিন জাতের ছেলের সঙ্গে মেয়ের বিয়ে দেবে না বলে যুবতীর পরিবার তার অন্যত্র বিবাহের ঠিক করে।

আরও পড়ুন:যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত, চিনের সঙ্গে ৫ হাজার কোটি টাকার চুক্তি বাতিল মহারাষ্ট্র সরকারের

আগামী বৃহস্পতিবার সেই বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। এদিকে অন্যান্য পরিযায়ী শ্রমিকদের সঙ্গে মেয়েটির প্রেমিক গ্ৰামে ফিরে এলে দুজনের আবার ঘনিষ্ঠতা বাড়ে। কিন্তু প্রমিক-প্রেমিকা কিছুতেই তাঁদের পরিবারকে বিয়েতে রাজি করাতে পারেনি। সোমবার ভোররাতে দুই জনই বাড়ি থেকে বেরিয়ে অবশেষে আত্মহত্যার পথ বেছে নেয়। পুলিশ দেহগুলি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে। ঘটনায় শোকস্তব্ধ দুই পরিবারে।  গ্রামবাসীদের কথায়, ‘ দুই পরিবার বিয়েতে সম্মতি দিলে এমন ভাবে দুটি তরতাজা প্রাণ শেষ হয়ে যেত না। ‘

Related Articles

Back to top button
Close