fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

গরু পাচার কাণ্ডে বেআইনি সিন্ডিকেট স্ট্যাম্পের হদিশ, পশ্চিমবঙ্গে ৩ জেলায় তদন্তে CBI

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: গরুপাচার চক্রের তদন্তে আরও সক্রিয় ভাবে তেড়েফুঁড়ে নামলেন সিবিআই গোয়েন্দারা। ইতিমধ্যেই শুক্রবার দিল্লি থেকে ফের গ্রেফতার করা হয়েছে গরুপাচার চক্রের কিংপিন এনামূল হককে। তাকে জেরা করে জানা গিয়েছে, গরু কিনে বেআইনি সিন্ডিকেট স্ট্যাম্প পেপারের সাহায্যে ৭ গুণ দাম বাড়িয়ে তা পাচার করা হত। আর এই কাজে যোগসাজশ ছিল এক শ্রেণির বিএসএফ আধিকারিকদেরই। আর পশ্চিমবঙ্গের তিন জেলাতে এই কাজ হয় সবচেয়ে বেশি।

ইতিমধ্যেই দিল্লি থেকে সিবিআই আধিকারিকদের একটি দল পশ্চিমবঙ্গে এসে পৌঁছেছে। তদন্তে উঠে এসেছে, বসিরহাট, মালদা ও মুর্শিদাবাদ- এই ৩ জেলা থেকেই মূলত চলে গরু পাচারের কারবার। তার জন্য রীতিমত গোছানো নেটওয়ার্ক রয়েছে গরু পাচারকারীদের। সূত্রে খবর, সেই কারণে এই ৩ জেলাতেই পৌঁছেছেন সিবিআই আধিকারিকরা। জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছেন একাধিক অফিসারদের। এনামূলকে জের করে বসিরহাটের এক ব্যবসায়ীর খোঁজ পেয়েছে সিবিআই। তাঁকে নজরবন্দি করে রাখা হয়েছে।

জানা গিয়েছে, বিএসএফ বা কাস্টমসের ধরা গরুগুলিকে প্রথমে কেনা হত। তারপর সেগুলিকে ৭ গুণ বেশি দামে পাচার করা হয়েছে। বেআইনি সিন্ডিকেট স্ট্যাম্প লাগিয়ে সেই গরুগুলিকে পাচার করা হয়েছে।
দিল্লিতেও কলকাতার এক ব্যবসায়ীকে নজরবন্দি করে রেখেছে সিবিআই। তাঁকেও জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। বিএসএফ-গরুপাচার চক্রের সিন্ডিকেটের পুরো নেটওয়ার্কের পর্দাফাঁস করতে এখন সক্রিয় সিবিআই গোয়েন্দারা

Related Articles

Back to top button
Close