fbpx
কলকাতাহেডলাইন

‘রাজ্যের সঙ্গে পাল্লা দিতে পারছে না কেন্দ্র, ৩-৪ জন বিজেপি সাংসদ তৃণমূলে আসতে চান’

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: আবারও একবার বিরোধীদের সমালোচনা করল তৃণমূল শিবির। রবিবার এক সাংবাদিক বৈঠকে সাংবাদিক কুণাল ঘোষ বলেন, ‘রাজ্যের সঙ্গে পাল্লা দিতে পারছে না কেন্দ্র। ৩-৪ জন বিজেপি সাংসদ তৃণমূলে আসতে চান।  বিরোধীরা পাল্লা দিতে পারছে না। বিরোধীরা নেতিবাচক রাজনীতি করছেন। উন্নয়ন নিয়ে প্রতিযোগিতা হোক।  ব্যক্তিগত কুৎসা বরদাস্ত নয়। বিজেপি নেতারা কুৎসা, ব্যক্তিগত আক্রমণ করছেন। বিজেপি সাংসদরা তৃণমূলে আসতে চাইছেন।

 

তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের যুব নেতাকে ব্যক্তিগত আক্রমণ করা হচ্ছে। বিজেপি ওই যুব নেতাকে ভয় পাচ্ছে। কৈলাস বিজয়বর্গীয় ‘ভাইপো’ বলছেন। ‘ভাইপো’ বলতে কার কথা বলছেন কৈলাস। ক্ষমতা থাকলে ভাইপোর নাম বলুন। কৈলাসকে চ্যালেঞ্জ করছি।’

কুণালবাবুর দাবি, ‘গতকাল কৈলাস বিজয়বর্গীয় রামনগরে মিথ্যে ভাষণ দিয়েছেন। তৃণমূলর যুবনেতাকে নিশানা করে মিথ্যাচার করেছেন।’ তাঁর মতে, ‘রাজনীতিতে পাল্লা দিতে না পারায় চরিত্রহনন করছেন। বিজেপি ভয় পাচ্ছে বলেই যুবনেতাকে আক্রমণ করছে।’ কৈলাশ-পুত্র আকাশকে হাতিয়ার করেও বিজেপিকে নিশানা করেন কুণাল। বলেন, ‘কৈলাস-পুত্র আকাশ বিজয়বর্গীয় পুরকর্মীদের মেরেছিলেন। আকাশ বিজয়বর্গীয় নিজেও তো বিজেপির বিধায়ক। গুণ্ডামি করে গ্রেফতার হয়েছিলেন আকাশ।

 

মুকুল রায়কে নিয়েও এদিন বিজেপিকে আক্রমণ করেন কুণাল। তিনি বলেন, ‘২০১৫-য় বলেছিল ভাগ মুকুল ভাগ। তাঁকেই তো আবার দলে নিয়েছে বিজেপি।’ কুণালের তোপ, ‘মুকুল রায়কে দলে নিয়ে সারদা নিয়ে জ্ঞান দেবেন না। যে সিন্ডিকেটের কথা বলেছিলেন, তিনিই আজ বিজেপিতে। দুর্নীতির অভিযোগ থাকলে তদন্ত করুন। তিনি যোগ করেন, ‘মুকুলকে মুখোমুখি বসিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের অনুরোধ করেছিলাম। এখনও সিবিআই কোনও পদক্ষেপ করেনি। মির্জার বয়ান অনুযায়ী মুকুল রায়কেও গ্রেফতার করা উচিত।’

Related Articles

Back to top button
Close