fbpx
কলকাতাহেডলাইন

দুর্যোগকালীন আগাম সতর্কতা জারি করল CESC 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: দুর্যোগের সময়ে গ্রাহকদের কি করণীয় আর কি করণীয় নয়, তা নিয়ে এবার আগে থেকে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করল বিদ্যুত সরবরাহ কারি সংস্থা সিইএসসি। আম্ফানের সময় বিদ্যুতের অজানা বিপদে অনেক কেই প্রাণ হারতে হয়েছিল। তাই আগে থেকেই সর্ব সাধারণকে সতর্ক করতে উদ্যোগি হল সি ই এস সি।
ইতিমধ্যেই সি ই এস সি এই সংক্রান্ত তথ্য বিজ্ঞাপন দিয়ে এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ করেছে। অন্যদিকে রাজ্য বিদ্যুৎ বন্টন সংস্থাও একই পথে এগোচ্ছে। সি ই এস সি র’ এক আধিকারিক জানিয়েছেন, আমাদের সংস্থার এমারজেন্সি নম্বরে যোগাযোগ করলে আমরা সাহায্য করব। তবে গ্রাহকদের সবার আগে নিজেদের সচেতন হতে হবে। রাজ্য বিদ্যুৎ দফতর সূত্রে খবর, একাধিক জায়গায় তাদের কর্মীরা এমারজেন্সি কারণে থাকবে। বৃহস্পতিবার অবধি যে প্রাকৃতিক দূর্যোগ চলবে তা সামাল দেওয়ার জন্যে সব ব্যবস্থা তারা করে রেখেছেন।
তাই বিজ্ঞাপন দিয়ে। বিদ্যুৎ সরবরাহ করি সংস্থাগুলি জানিয়েছে যারা বাইরে থাকবেন, বৃষ্টির সময়ে বিদ্যুতের পোলে, ঝুলে থাকা তারে, রাস্তার পিলার বক্সে, ল্যাম্পপোস্টে  বা বিদ্যুৎ যন্ত্রে হাত দেবেন না। যদি কোথাও জল জমে থাকে, নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে তা এড়িয়ে চলুন। কাজের জায়গা বা অফিস থেকে বেরিয়ে আসার সময়ে এসি মেশিন এবং অন্যান্য বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতি বন্ধ করতে যেন না ভোলেন গ্রাহকরা।
যারা বাড়ির মধ্যে থাকবেন, তাদের উদ্দেশ্য জানানো হয়েছে, ভিজে হাতে টিভি, রেফ্রিজারেটর, এসি বা ইলেকট্রনিক যন্ত্রপাতি অথবা কোনও সুইচ ছুঁয়ে বিপদ ডেকে আনবেন না। মোবাইল ফোন চার্জ দেওয়া অবস্থায় কথা বলবেন না। অন্যান্য ব্যবহার এড়িয়ে চলাই ভাল। যদি কোনও কারণে পোড়া গন্ধ বের হয় অথবা ইলেকট্রনিক জিনিষে হাত দিলেই শক লাগে তাহলে সাথে সাথে সুইচ অফ করে ইলেকট্রিক মিস্ত্রি ডেকে দেখাতে বলা হয়েছে।
প্রচন্ড বৃষ্টির সময়ে এবং বাজ পড়লে ইলেকট্রনিক যন্ত্রপাতি সুইচ অফ করে রাখতে বলা হয়েছে। সাবধানে প্লাগ খুলতে বলা হয়েছে। জোড়াতালি দেওয়া লাইন ব্যবহারে বারণ করা হয়েছে। বিদ্যুতের তারে ভিজে জামা কাপড় শুকাতে দিতে বারণ করা হচ্ছে। গ্রিল বা ইস্পাতের জানলায় এক্সটেনশন তার লাগাতে বারণ করা হচ্ছে।

Related Articles

Back to top button
Close