fbpx
কলকাতাহেডলাইন

দুর্গাপুজোয় ইউনেস্কোর স্বীকৃতিকে সম্মান জানিয়ে ধন্যবাদ মিছিলের ডাক মুখ্যমন্ত্রীর,  আজ তীব্র যানজটের আশঙ্কায় শহরবাসী

যুগশঙ্খ, ওয়েবডেস্ক: দুর্গাপুজোয় ইউনেস্কোর স্বীকৃতিকে সম্মান জানিয়ে আজ ধন্যবাদ মিছিলের ডাক দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবার নবান্ন থেকেই আজকের প্রস্তুতি সম্পর্কে উল্লেখ করেন তিনি। দলমত নির্বিশেষে সকলকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। মুখ্যমন্ত্রীর বলেন, “গর্বের সঙ্গে এই মিছিল করব আমরা। ইউনেস্কোকে ধন্যবাদ জানিয়ে এই মিছিল হবে। সাধারণ মানুষকে, সমস্ত পুজো কমিটিকে ধন্যবাদ জানিয়ে এই শোভাযাত্রা। সাংস্কৃতিক জগতের সমস্ত ব্যক্তিত্বকে আমন্ত্রণ জানাচ্ছি। একইসঙ্গে সংবাদমাধ্যমের মাধ্যমে দলমত নির্বিশেষে সকলকে এই এই শোভাযাত্রায় আমন্ত্রণ জানাচ্ছি।”

পূর্ব নির্ধারিত মতো বৃহস্পতিবার বেলা ২টো নাগাদ এই বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা শুরু হবে। ২টোয় মিছিল শুরু হবে জোড়াসাঁকো থেকে। শেষ হবে রেড রোডে।

মুখ্যমন্ত্রী এদিন বলেন, সাতটি ওয়ার্ডের মধ্যে দিয়ে এই মিছিল যাবে। রেড রোডে অতিথিদের জন্য আসনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। যারা মিছিলে হাঁটতে পারবেন না, তাঁদের জন্য রেড রোডে ব্যবস্থা থাকবে।” মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে শিল্পী, সাহিত্যিক, ক্রীড়া ও সংস্কৃতি জগতের বিশিষ্টজনেরাও পা মেলাবেন। একাধিক পুজো উদ্যোক্তা নিজস্ব ড্রেস কোড ও রঙিন ছাতা, ফেস্টুন নিয়ে মিছিলে অংশ নেওয়ার জন্য প্রস্তুত। মহিলাদের হাতে থাকবে শঙ্খ। ইতিমধ্যেই চলতে চূড়ান্ত মুহূর্তের তৎপরতা। সংবাদমাধ্যকেও সহযোগিতা করছে বলা হয়েছে।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে তিন হাজার পুলিশ মোতায়েন থাকবে। লালবাজার সূত্রের খবর, গোটা নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকবেন কলকাতা পুলিশের স্পেশাল কমিশনার দময়ন্তী সেন। মিছিলের এই দীর্ঘ যাত্রাপথে রাখা হচ্ছে ৫৫টি পুলিশ পিকেট। শহরের ২১টি গুরুত্বপূর্ণ রাস্তায় যান চলাচল পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে। সকাল ৯টা থেকে দুপুর ৩টে পর্যন্ত চিত্তরঞ্জন অ্যাভিনিউতে যান চলচল বন্ধ থাকবে। গাড়িগুলিকে ঘুরিয়ে দেওয়া হবে শ্যামবাজার পাঁচমাথার মোড়ের দিকে। এপিসি রোড, এজিসি বোস রোড হয়ে গাড়িগুলি ওই রুটে যাবে। সেন্ট্রাল অ্যাভিনিউয়ের রাস্তার হাওড়াগামী দিক খোলা থাকবে। আচার্য প্রফুল্লচন্দ্র রায় রোড ও আচার্য জগদীশচন্দ্র বসু রোডের একাংশ খোলা থাকবে, যাতে শিয়ালদহগামী গাড়ি চলাচল করে।

নিরাপত্তার জন্য শহরকে তিনটি জোনে ভাগ করেছে পুলিশ। ১) জোড়াসাঁকো ২) সেন্ট্রাল অ্যাভিনিউ ৩) রেড রোড।

রাজ্যজুড়ে তীব্র যানজটের আশঙ্কায় শহরবাসী। দুদিন আগেই তৃণমূল ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা দিবসে একাধিক রাস্তায় বাস রুটের পরিবর্তন করা হয়। ফলে তীব্র যানজটে সমস্যা দেখা দেয়।

Related Articles

Back to top button
Close