fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

‘ভারতের ৩৮ হাজার বর্গ কিলোমিটার জমি জবরদখল করেছে চিন’: রাজনাথ

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক:  বর্ষাকালীন অধিবেশনে সংসদে এদিন চিনের আগ্রাসনের বিরুদ্ধে সরব হবেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। বর্তমানে ঠিক অবস্থা তা নিয়ে বিরোধী শিবিরের প্রশ্নের উত্তরে বৃহস্পতিবার প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং সাফ জানান বেজিং যা বলছে এবং করছে সেখানে পার্থক্য রয়েছে। তিনি এও বলেন, চিন গত মাসের শেষের দিকে সামরিকভাবে উস্কানি দিয়ে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর স্থিতিশীলতা পরিবর্তনের চেষ্টা করেছিল।’ আমি সংসদকে আশ্বস্ত করতে চাই যে ভারত কোনও কঠোর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করার থেকে পিছপা হবে না এবং আমাদের বাহিনী প্রতিশোধ নেওয়ার পক্ষে আরও ভাল অবস্থানে রয়েছে।’ রাজনাথ সিংহ আরও বলেন, নিয়ন্ত্রণ রেখার কাছে চিন যুদ্ধযন্ত্র এবং সেনা মোতায়েন করেছে।

বৃহস্পতিবার রাজ্যসভায়  লাদাখ ইস্যুতে বিবৃতি দিতে গিয়ে প্রতিরক্ষামন্ত্রী জানান, “চিন এখনও বেআইনিভাবে কেন্দ্রশাসিত লাদাখের প্রায় ৩৮ হাজার বর্গ কিলোমিটার জমি দখল করে রেখেছে। সেই সঙ্গে পাকিস্তান তথাকথিত শিনো-পাকিস্তান এলাকা থেকে আরও ৫ হাজার ১৮০ বর্গ কিলোমিটার চিনের হাতে তুলে দিয়েছে। এসব ছাড়াও চিন ভারতের দখলে থাকা আরও ৯০ হাজার বর্গ কিলোমিটার জমিকে নিজেদের জমি বলে দাবি করে।”তবে, এনডিএ (NDA) আমলে ভারতের কোনও জমি চিনারা দখল করেছে কিনা, সেটা স্পষ্ট করেননি প্রতিরক্ষামন্ত্রী।

আরও পড়ুন: ‘কোটি কোটি ভারতবাসী আজ আপনার দীর্ঘায়ু কামনা করছে’, নমোকে বললেন কঙ্গনা

সীমান্তে অশান্তির জন্য চিনকে দায়ী করে এদিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন,”এখনকার পরিস্থিতি অনেক আলাদা। আগের থেকে অনেক বড় এলাকা নিয়ে বিবাদ। এর সঙ্গে অনেক বেশি সেনাবাহিনীও জড়িয়ে। আমার এখনও সব সমস্যার শান্তিপূর্ণ সমাধানের পক্ষে। কিন্তু চিন ১৯৯৩ এবং ১৯৯৬ সালে হওয়া দ্বিপাক্ষিক চুক্তিকে সম্মান করছে না। যতদিন শান্তিপূর্ণভাবে দুই দেশের সীমানা নির্ধারণ না হচ্ছে, ততদিন প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখাকে আমাদের সম্মান করতেই হবে।” রাজনাথ সিং জানিয়েছেন, ভারত নিজেদের সীমানা রক্ষায় বদ্ধপরিকর। চিন সীমান্তে আরও বেশি পরিকাঠামো গড়তে প্রতিরক্ষায় বাজেট বরাদ্দও বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

 

Related Articles

Back to top button
Close