fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

চিনা আগ্রাসনের প্রতিবাদে কলকাতায় চিনাদের বিক্ষোভ

অভিষেক গঙ্গোপাধ্যায়, কলকাতা: ‘যে দেশে প্রবেশের জন্য আমাদের ভিসার প্রয়োজন হয়। সেটা আমাদের মাতৃভূমি নয়।’ সাফ জানিয়ে দিল কলকাতায় বসবাসকারী চিনা সম্প্রদায়। শনিবার ভারতবর্ষকে সমর্থন জানিয়ে এমনটাই মন্তব্য করল কলকাতার চিনা সম্প্রদায়। এদিন কলকাতায় বাইপাসের ধারে তপসিয়া সংলগ্ন চিনা গেটের সামনে কলকাতায় বসবাসকারী চিনা সম্প্রদায় তৃণমূল ওয়ার্ড কাউন্সিলর ফৈয়াজ খানের নেতৃত্বে লাদাখে চিনা আগ্রাসনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানায়।

সম্প্রতি রাতের অন্ধকারে কাপুরুষোচিত অতর্কিত চিনা সৈনিকদের আক্রমণের ফলে নিহত হয় কুড়িজন ভারতীয় জওয়ান। সমস্ত নিয়ম বিধি উল্লঙ্ঘন করে চিনা সৈনিকরা ভারতীয় সীমানায় প্রবেশ করে ভারতের মাটিতে দাঁড়িয়ে কুড়ি জন জাওয়ান সহ আরও অনেক জওয়ানের ওপর হামলা চলায়। যেখানে দুই দেশের মধ্যে সীস ফায়ার চলছে সেখানে চিনা সৈনিকদের এই আক্রমণ নিন্দনীয় বলে মনে করছে বিশ্বব্যাপী বিশেষজ্ঞরা। আর তাই এই নিন্দনীয় ঘটনায় সড়ক হয়েছে অন্যান্য দেশগুলিও। আর চিনাদের এই নিন্দনীয় ঘটনাকে কোনও মতেই সমর্থন করে না কলকাতার চিনারা তা স্পষ্ট ভাবে আজ প্রতিবাদ দেখিয়ে বুঝিয়ে দিল।

এদিন চিনারা বলেন, ‘ভারতবর্ষ আমাদের দেশ। তাই আমরা ভারতের সঙ্গেই আছি। এ বিষয়ে ভারত যে পদক্ষেপ গ্রহণ করবে তার ওপর আমাদের পূর্ণ সমর্থন আছে। দীর্ঘ ৫/৬ পুরুষ ধরে আমরা ভারতে বাস করছি। তাই মনে প্রাণে ভারতীয়। তাই চিনের এই কার্যকলাপকে আমরা সমর্থন করি না। আমরা চাই আবারো দুই দেশের মধ্যে শান্তি ফিরুক।’

এদিন লাদাখে চিনা আগ্রাসনের প্রতিবাদে একটি মিছিলও করা হয় তপসিয়া চিনা গেটের সামনে। এছাড়াও হাতে পোস্টার ব্যানার নিয়ে প্রতিবাদ দেখায় চিনারা। তারা রীতিমত ‘জয় হিন্দ’ ও ‘ভারত মাতা কি জয়’ বলে স্লোগান দিতে থাকে। বেলা বারোটা থেকে দীর্ঘ এক ঘন্টা সময় ধরে এভাবেই তারা তোপসিয়াতে চিনা গেটের সামনে দাঁড়িয়ে প্রতিবাদ দেখায়।

এদিনের অনুষ্ঠানে নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন তৃণমূল কাউন্সিলর ফৈয়াজ খান। তিনি বলেন, ‘লাদাখে যে ঘটনা ঘটেছে তার প্রতিবাদ জানাতেই চিনা সম্প্রদায় স্বতঃস্ফূর্তভাবে এখানে সমবেত হয়েছে। লাদাখে চিনা সৈনিকরা যে কর্মকাণ্ড ঘটিয়েছে তাকে এখানকার চিনা নাগরিকরা মোটেই সমর্থন করে না। তাই রাস্তায় বেরিয়ে প্রতিবাদে মুখর হয়েছে।’

 

Related Articles

Back to top button
Close