fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণবাংলাদেশহেডলাইন

ড্রাগনের নজরে নদীর জল! বাংলাদেশের নদী প্রকল্পে বিপুল চিনা-ঋণ, ঋণের ফাঁদে ফেলার চক্রান্ত?

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: গরমকালে নদীতে জল ধরে রাখতে বাংলাদেশে নদী প্রকল্পগুলিতে এ বার আধিপত্য বাড়াচ্ছে চিন৷ যার নির্যাস, বাংলাদেশকে ১০০ কোটি মার্কিন ডলার ঋণ দিতে চলেছে চিন৷ বাংলাদেশের সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, ভারতের সঙ্গে তিস্তা চুক্তি সাফল্য না-পাওয়ায় খরা বা শুষ্ক মরশুমে জলস্তর পর্যাপ্ত রাখতে চিনের থেকে ১০০ কোটি মার্কিন ডলার ঋণ পাচ্ছে ঢাকা৷ বাংলাদেশের ওয়াটার ডেভেলপমেন্ট বোর্ডের অতিরিক্ত চিফ ইঞ্জিনিয়ার জ্যোতি প্রসাদ ঘোষ বাংলাদেশের একটি সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, ‘তিস্তা জলপ্রকল্পের জন্য বিরাট অঙ্কের ফান্ড দিচ্ছে চিন৷ আশা করছি, ডিসেম্বরেই আমরা এই প্রকল্পের কাজ শুরু করে দেব৷’ গত মে মাসে বাংলাদেশের অর্থমন্ত্রক ৮৫৩ মিলিয়ন ডলার চেয়েছিল তিস্তা জলপ্রকল্পের জন্য৷

ভারতের প্রতিপক্ষ চিন ১০০ কোটি মার্কিন ডলার ঋণ দিয়ে দিয়েছে তিস্তা প্রকল্পের জন্য৷ সূত্রের খবর অনুযায়ী, তিস্তা প্রকল্পের জন্য গত মাসে চিনের কাছে প্রায় ৯৮ লক্ষ মার্কিন ডলার ঋণ চেয়েছিল বাংলাদেশ৷

বস্তুত চিনা ঋণের জালে জড়িয়ে সর্বস্বান্ত হয়েছে আফ্রিকার একাধিক দেশ। ‌নাইজেরিয়া কেনিয়া সোমালিয়া সুদান থেকে জিম্বাবুয়ে বিভিন্নভাবে চিনা ঋণের জালে জড়িয়ে নিজেদের আর্থিক স্বাধীনতা খুইয়েছে। ব্যতিক্রম নয় কাজাখস্তানের মতন মধ্য এশিয়ার বৃহৎ রাষ্ট্র ও। শ্রীলংকার চিনা নির্ভরশীলতার অন্যতম কারণ বেজিংয়ের ঋণ। এবার নদী ইস্যুকে কেন্দ্র করে শ্রাবণের ঋণের জালে পা ফেলতে চলেছে বাংলাদেশ। এই ঋণ পরবর্তীকালে বাংলাদেশের আর্থিক স্বাধীনতাকে ক্ষুন্ন করে চিন নির্ভরশীলতাকে কয়েকগুণ বাড়িয়ে দিতে পারে বলেই মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল।

Related Articles

Back to top button
Close