fbpx
বিনোদনহেডলাইন

মানব দেহে ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অংশ হওয়ার ইচ্ছাপ্রকাশ করলেন চূর্ণি গঙ্গোপাধ্যায়

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা আতঙ্কে ত্রস্ত গোটা বিশ্ব। এরই মাঝে শোনা গিয়েছে যে, দিল্লির অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্স বা এইমস-এ চলছে মানব শরীরে করোনা ভ্যাকসিনের পরীক্ষামূলক ব্যবহার। আর করোনা ভ্যাকসিনের হিউম্যান ট্রায়ালের অংশ হতে ইচ্ছে প্রকাশ করলেন অভিনেত্রী তথা পরিচালিকা চূর্ণি গঙ্গোপাধ্যায়। এই বিষয়ে একটি মেইল পাঠিয়ে ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন তিনি।

জানা গিয়েছে, এইমস-এ করোনা ভ্যাকসিনের হিউম্যান ট্রায়ালের প্রথম ও দ্বিতীয় পর্ব শুরু হতে চলেছে বলে জেনেই ই-মেইল পাঠিয়ে সেই ট্রায়ালের অংশ হওয়ার ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন চূর্ণি গঙ্গোপাধ্যায়। সোমবারই এই ই-মেইল পাঠান তিনি। এই বছরের মাদার্স ডে-তে চূর্ণি তাঁর ফেসবুক পেজে লিখেছিলেন যে সুযোগ পেলে তিনি নিজেকে করোনা ভ্যাকসিনের হিউম্যান ট্রায়ালের জন্য ব্যবহার করতে দেবেন। গত ১০ মে-র ফেসবুক পোস্টে চূর্ণি লেখেন, ‘এই দিনটা দেখার জন্য আমরা কেউ মা হইনি।’

নিয়ম অনুসারে করোনা ভ্যাকসিনের ট্রায়াল যার ওপর করা হবে সেই স্বেচ্ছাসেবকের অন্য কোনও কঠিন অসুখ থাকলে চলবে না। তাঁর বয়স হতে হবে ১৮ থেকে ৫৫ বছরের মধ্যে। এই সবকটি নিয়মই তাঁর ক্ষেত্রে খেটে যাওয়ায় করোনা ভ্যাকসিনের ট্রায়ালের জন্য স্বেচ্ছাসেবক হতে চেয়ে মেইল পাঠিয়েছেন চূর্ণি।

এই বিষয়ে চূর্ণি বলেন, ‘যবে থেকে এই প্যানডেমিক শুরু হয়েছে, আমি জানতাম যে এর থেকে মুক্তি পাওয়ার একমাত্র উপায় ভ্যাকসিন আবিষ্কার।’ তবে তিনি যে ভ্যাকসিনের হিউম্যান ট্রায়ালের অংশ হতে চান তা মার্দাস ডে-তে লেখা ফেসবুক পোস্টের আগে কাউকে জানাননি চূর্ণি। তিনি বলেন, ‘আমি ভয় পেয়েছিলাম যে আমার স্বামী আর ছেলে হয়তো এই বিষয়ে আপত্তি করতে পারে। তাই আমি পোস্ট করার পরে ওদের সেটা পড়তে বলি। তবে ওরা দুজনেই আমাকে সমর্থন করেছে।’ সোমবার মেইল পাঠানো পর আবার স্বামী কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায় এবং ছেলে উজানকে সব জানান চূর্ণি। এখন জবাবি মেইল আসার অপেক্ষা করছেন তিনি। তাঁর এই সিদ্ধান্তকে সমর্থন করেছেন কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায় ও উজান।

 

Related Articles

Back to top button
Close