fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

করোনা-ডেঙ্গুর হাত থেকে রক্ষা করতে বিশেষ অভিযান শুরু করল পুর কর্তৃপক্ষ   

নিজস্ব সংবাদদাতা, দিনহাটা:  বাসিন্দাদের মারণ রোগ করোনা ও ডেঙ্গু  এই দুই এর হাত থেকে রক্ষা করতে বিশেষভাবে অভিযান শুরু করল পুর কর্তৃপক্ষ। এই দুই রোগ মোকাবিলায় পুর এলাকার বিভিন্ন ওয়ার্ডে বাসিন্দাদের কার কত তাপমাত্রা  রয়েছে তা নেওয়া শুরু করেছে  স্বাস্থ্য কর্মীরা।

আগামী ২৪ শে জুলাই পর্যন্ত এই কর্মসূচি চলবে বলেও পুরসভা সূত্রে জানা গেছে। জ্বরের পাশাপাশি  শহরের কোনও  বাড়িতে কোথাও জল জমে রয়েছে কিনা তার খোঁজখবর নিচ্ছেন স্বাস্থ্যকর্মীরা। ওয়ার্ডের কোথাও কোনও বাড়িতে জল জমে থাকলে সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। কোথাও জমা জল জমে থাকলে তা থেকে নানাভাবে রোগ জীবাণু ছড়িয়ে পড়তে পারে। সেখানে  মশার আঁতুড়ঘরে পরিণত হয়ে ওঠে। তাই আগে থেকেই পুর কর্তৃপক্ষ মানুষকে সচেতন করতে বিশেষ এই অভিযানে নেমেছে। দিনহাটা শহরের ১৬টি ওয়ার্ডে পুরসভার স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মীরা সোমবার থেকে এই কাজ শুরু করেছে। আগামী ২৪ জুলাই পর্যন্ত এই সার্ভে চলবে বলেও দায়িত্বপ্রাপ্ত সুপারভাইজারদের বিকাশ সরকার জানান।

উল্লেখ্য, দিনহাটা শহরে গতবছর ডেঙ্গুতে কেউ আক্রান্ত না হওয়াই এবছর পুরসভার পক্ষ থেকে আরো নজরদারি বাড়ান হয়েছে। পাশাপাশি করোনা ভাইরাসে শহরে এখন পর্যন্ত একজন স্বাস্থ্য কর্মী সহ পাঁচ জন আক্রান্ত হয়েছে। পুরসভা সূত্রে জানা গেছে করোনা ভাইরাসে দিনহাটা শহরে বিভিন্ন এলাকায় বাসিন্দাদের কারো জ্বর  রয়েছে কিনা সেটা যেমন নথিভূক্ত করা শুরু হচ্ছে তেমনি ডেঙ্গি মোকাবিলা তেও একই সাথে কাজ শুরু হয়েছে। বিস্তারিত তথ্য তারা পুরসভার হেলথ অফিসারের হাতে তুলে দেবেন। এরপর সেখান থেকে সবকিছু পর্যালোচনা করে পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করবে কর্তৃপক্ষ।

পুরসভার ১৬টি ওয়ার্ডে  স্বাস্থ্যকর্মীদের দুই জন করে মোট ৩৮টি দল বাড়ি বাড়ি গিয়ে এই কাজ করছে। এই দলগুলিকে পরিচালনার জন্য রয়েছে আট জন সুপারভাইজার। স্বাস্থ্যকর্মীদের প্রতিটি দল শহরের বিভিন্ন এলাকায় ১১৪৪৪ টি বাড়ি ভাগ করে এক একটি টিম  ওয়ার্ডের তিনশ টি বাড়ি ভিজিট করবে । পুরসভার স্বাস্থ্যকর্মীদের দুই জনের একটি দল একদিকে করোনা অন্যদিকে ডেঙ্গু প্রতিরোধে নানা রকম তথ্য সংগ্রহ করছে।

দিনহাটা পুরসভার হেলথ  অফিসার চিকিৎসক বিদ্যুৎ কমল সাহা বলেন  পুরসভার স্বাস্থ্যকর্মীরা গত কয়েক বছর ধরে যথেষ্ট নিয়ম মেনে কাজ করে চলছেন। গত বছর দিনহাটা শহরে ডেঙ্গি আক্রান্তের কোনও হদিশ মেলেনি। তাই এবার আগে থেকেই বিভিন্ন ওয়ার্ডে বাড়ি বাড়ি গিয়ে কর্মীরা করোনা ও ডেঙ্গি  মোকাবিলার কাজ শুরু করেছে। দিনহাটা পুরসভার প্রশাসক বিধায়ক উদয়ন গুহ বলেন শহরবাসীকে সুরক্ষিত রাখতে তারা প্রথম থেকেই চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

 

Related Articles

Back to top button
Close