fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

সরকারি নিয়ম না মেনে কাজ করার অভিযোগ, স্কুলের ঘর নির্মানের কাজ বন্ধ করল গ্রামবাসী

দিব্যেন্দু রায়, কেতুগ্রাম: সরকারি নিয়ম মেনে কাজ করা হচ্ছে না,এই অভিযোগ তুলে কেতুগ্রামে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ঘর নির্মানের কাজ বন্ধ করে দিল গ্রামবাসীদের একাংশ । সোমবার কেতুগ্রাম-২ ব্লকের সীতাহাটি অঞ্চলের শাখাই গ্রামের এই ঘটনা ঘরে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায় এলাকায় । পরে স্কুলের তরফ থেকে বিষয়টি প্রশাসনকে জানানো হয় । তারপর ব্লক প্রশাসনের প্রতিনিধি ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযোগ খতিয়ে দেখেন । প্রশাসনের প্রতিনিধিরা কাজের সিডিউল বের করে দেখালে শেষ পর্যন্ত বিক্ষোভকারীরা শান্ত হন । পাশাপাশি কাজের মধ্যে ছোটখাটো কিছু ভুলত্রুটি নজরে পড়লে প্রশাসনের তরফ থেকে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারকে তা সংশোধন করে নিতে বলা হয় । তারপর পুনরায় কাজ শুরু হয়।

জানা গেছে, শাখাই গ্রামে রয়েছে শাখাই অবৈতনিক প্রাথমিক বিদ্যালয় । ওই স্কুলের জন্য ৭ লক্ষ ৯ হাজার টাকা ব্যায়ে প্রায় ৫৫ বর্গমিটারের একটি ক্লাসরুম নির্মান করা হচ্ছে । এদিন ওই ঘরের ছাদ ঢালাইয়ের জন্য প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছিল । সেই সময় স্থানীয় একটি ক্লাবের কয়েকজন সদস্য এসে এসে কাজ বন্ধ করে দেন। ক্লাবের সদস্যদের অভিযোগ,ঠিকাদারকে কাজের সিডিউল দেখাতে বললেও তিনি তা দেখাতে অস্বীকার করেছেন । পাশাপাশি ছাদে রডের খাঁচা নিয়ম অনুযায়ী বাঁধা হয়নি বলে অভিযোগ তোলেন ক্লাবের সদস্যরা ।

         আরও পড়ুন: করোনা আক্রান্ত রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী কৃষ্ণেন্দু নারায়ণ চৌধুরী

জানা গেছে, ক্লাব সদস্যরা ঘর নির্মানের কাজ বন্ধ করে দিলে স্কুলের প্রধানশিক্ষকের দ্বারস্থ হন ঠিকাদার । তখন প্রধান শিক্ষক বিষয়টি ব্লক প্রশাশনকে জানান । বিষয়টি জানার পর ব্লক প্রশাসনের প্রতিনিধিদের পাশাপাশি পুলিশবাহিনী ঘটনাস্থলে আসে । ব্লক প্রশাসনের প্রতিনিধি সুব্রত ঘোষ কাজ খুঁটিয়ে দেখার পর বিক্ষোভকারীদের কাজের সিডিউল দেখিয়ে জানিয়ে দেন ছোটখাটো দু’একটা সমস্যা থাকলেও নিয়ম মেনেই কাজ করা হচ্ছে । তারপর ক্লাবের সদস্যরা যে যার বাড়ি চলে যান । এদিকে ছাদ ঢালাইয়ের আগে যে রডের খাঁচা বাঁধা হয়েছিল সেই খাঁচার কয়েক জায়গায় তার খুলে গিয়েছিল । ঠিকাদারকে সেগুলি ভালো করে বাঁধার পর কাজ শুরু করার নির্দেশ দেন সুব্রতবাবু। তারপর যথারীতি কাজ শুরু হয়ে যায় ৷

Related Articles

Back to top button
Close