fbpx
হেডলাইন

অশোক ভট্টাচার্যের শারীরিক অবস্থার জটিলতায় উদ্বেগযুক্ত

সঞ্জিত সেনগুপ্ত, শিলিগুড়ি: করোনায় আক্রান্ত শিলিগুড়ি পুরসভার প্রশাসক বোর্ডের চেয়ারম্যান অশোক ভট্টাচার্যের শারীরিক অবস্থা শুক্রবার বিকেল পর্যন্ত স্থিতিশীল থাকলেও রাতে নতুন করে কিছু জটিলতা দেখা দেয়। এনিয়ে চিকিৎসকরা কিছুটা হলেও উদ্বিগ্ন। শনিবার শিলিগুড়ি মাটিগাড়া একটি নার্সিংহোমে অশোকবাবুর চিকিৎসার দায়িত্বে থাকা চিকিৎসকরা একথা জানিয়েছেন। হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, শনিবার রাতে হঠাৎ করেই তাঁর রক্তে অক্সিজেনের মাত্রা কমে যায়। সঙ্গে সঙ্গে সিটি স্ক্যান করে দেখা গিয়েছে করোনা সংক্রমণের কিছু জটিলতা শুরু হয়েছে।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে তাই অশোকবাবুর চিকিৎসায় কিছু ওষুধ পরিবর্তন করা হয় সেই সঙ্গে অক্সিজেনের মাত্রাও বাড়ানো হয়েছে। দীর্ঘিদেন সুগারের রোগী হওয়ার পামাপাশি তাঁর বয়স ৭২ বছর। কয়েক মাস আগে তাঁর অ্যাঞ্জিওপ্লাস্ট হয়েছে। তাই তিনি প্রথম থেকেই করোনা সংক্রমণের হাই রিস্ক লেভেলে রয়েছেন। তবে এদিন সকালে অশোকবাবু জানিয়েছেন তিনি আগের তুলনায় অনেকটাই সুস্থ বোধ করছেন। আগের মতো দুর্বল অনুভব করছেন না। তার চিকিৎসার দায়িত্বে থাকা চিকিৎসকদের অন্যতম অয়ন বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, রাজ্য সরকার নিযুক্ত কলকাতার বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের সঙ্গে এদিন তারা অশোকবাবুর চিকিৎসার ব্যাপারে ভিডিও কনফারেন্স করবেন।

আরও পড়ুন: বাংলাতে ১০৩ নম্বর খুন তৃণমূলী আক্রমণে, গ্রাম্যবিবাদের নাম করে রাজনৈতিক হত্যাকে চাপা দেওয়ার চেষ্টা করছে: দিলীপ ঘোষ

এদিকে এদিনও উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত সন্দেহে দুজন ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। করোনা উপসর্গ নিয়ে এরা রিকি ওয়ার্ডে ভর্তি ছিলেন। তাদের লালারসের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট নেগেটিভ এলেই মৃতদেহ পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হবে। এদিকে গত ৪৮ ঘণ্টায় আরও তিন জন রোগীর মৃত্যু হয়েছিল। লালারস পরীক্ষার রিপোর্ট আসার পর জানা যায় ওই তিনজন করোনায় আক্রান্ত ছিলেন। তাই মৃতদেহগুলি পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়নি।

Related Articles

Back to top button
Close