fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

লকডাউনের মধ্যেই রাজীব গান্ধীর জন্মদিন পালন কংগ্রেসের, নিয়ম ভঙ্গ করায় আসানসোলে গ্ৰেফতার ১৩৫

শুভেন্দু বন্দোপাধ্যায়, আসানসোল: রাজ্য জুড়ে বৃহস্পতিবার থেকে টানা ২ দিনের লকডাউন শুরু হয়েছে। লকডাউনের প্রথম দিন আসানসোল শিল্পাঞ্চল একদিকে পুলিশের কড়া নজরদারি ও অন্যদিকে, সকাল থেকে বৃষ্টির কারণে রাস্তায় লোকেরা তেমনভাবে ছিল না। জরুরী কাজের সঙ্গে যারা যুক্ত তাদের ছাড়া এদিন খুব একটা মানুষকে বাইরে দেখাও যায়নি। তবে লকডাউনের নিয়ম ভেঙে কংগ্রেসের পক্ষ থেকে এদিন ছোট করে হলেও বেশ কিছু জায়গায় দেশের প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধীর মূর্তিতে মাল্যদানের মাধ্যমে জন্মদিন পালনের অনুষ্ঠান হয়।

এদিন ঝাড়খন্ড বাংলার সীমান্তে ডুবুরডিহি , রুপনারায়নপুর , রুনাকুড়াঘাটে নাকা চেকিংয়ের ব্যবস্থা করা হয়েছিল। সব কাগজ পরীক্ষা করার পরেই গাড়ি ছাড়া হয়। একইভাবে, আসানসোলের জিটি রোড ও হটন রোডের সংযোগস্থল , বিএন আর মোড়, রানিগঞ্জের পাঞ্জাবী মোড়, কুলটি সহ সব জায়গায় পুলিশের কড়া নজরদারি ছিল। যারা বাইরে বেরোনোর প্রয়োজনীয় প্রমাণ বা তথ্য পুলিশকে দেখাতে পারেননি তাদের বাড়ি ফিরিয়ে দেওয়া হয়। এদিন লকডাউনের মধ্যেই রানিগঞ্জ থানার বল্লভপুর ফাঁড়ির পুলিশ গোপন সূত্রে খবর পেয়ে গীর্জা পাড়া রেল ফটকের কাছে এক নির্মীয়মান বাড়িতে আচমকা হানা দিয়ে পাঁচজন জুয়াড়িকে গ্ৰেফতার করে। তাদের কাছ থেকে নগদ কিছু টাকা উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

এদিকে লকডাউনের মধ্যেই এদিন কংগ্রেসের পক্ষ থেকে আসানসোলের ইসমাইল মোড়, রাহা লেন মোড় সংলগ্ন আসানসোল দলীয় অফিস সহ একাধিক জায়গায় রাজীব গান্ধীর মূর্তিতে মালা দেওয়ায় অনুষ্ঠান হয়। সেখানে কিন্তু সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার কোনো বিষয় ছিল না।

কংগ্রেস নেতা প্রসেনজিৎ পুইতুন্ডি ও শাহিদ পরভেজ বলেন, রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় জানেন যে এদিন রাজীব গান্ধীর জন্মদিন। সারা রাজ্যের কংগ্রেস কর্মীরা এদিন প্রতি বছর তা পালনের অনুষ্ঠান করে থাকেন । তিনি পাঁচবার লকডাউনের দিনবদল করলেও আমাদের অনুরোধে এই দিনটা বদল করেননি। তাই আমরা বাধ্য হয়েই রাস্তায় বেরিয়ে মিছিল করেছি। কোথাও ছোট করে অনুষ্ঠান করে রাজীব গান্ধী মূর্তিতে মালা দিয়েছি। তাতে যদি আমাদের বিরুদ্ধে পুলিশ আইনগত ব্যবস্থা নেয়, নিতে পারে।

এদিক, লকডাউনে আসানসোল শিল্পাঞ্চলের দোকান বাজারও সম্পূর্ণ বন্ধ ছিল। অন্যদিকে, লক ডাউনের নিয়ম ভঙ্গ করায় এদিন সন্ধ্যা ছটা পর্যন্ত আসানসোল দূর্গাপুর পুলিশ কমিশনারেটের বিভিন্ন থানার পুলিশ মোট ১৩৫ জনকে গ্রেফতার করে। নির্দিষ্টভাবে এদিন সন্ধ্যা পর্যন্ত মোট ১২ টি কেস করেছে পুলিশ। সবচেয়ে বেশি ৩৬ জনকে গ্রেফতার করেছে দূর্গাপুর থানার পুলিশ।

Related Articles

Back to top button
Close