fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

ঘাটাল পৌরসভায় ১৫ দফা দাবিতে কংগ্রেসের ডেপুটেশন

শান্তনু অধিকারী, সবং: ইতিমধ্যে আমফানের ক্ষতিপূরণ নিয়ে চূড়ান্ত দলবাজির অভিযোগ উঠেছে রাজ্যব্যাপী। এই প্রেক্ষিতে ক্ষতিগ্রস্তদের নামের তালিকা পৌরসভায় প্রকাশ্যে ঝোলাতে হবে― এমনই দাবি তুলল ঘাটাল কংগ্রেস। শুধু তাই নয়, পৌরসভার তত্বাবধানে পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য প্রতিটি ওয়ার্ডে কোয়ারান্টিনের ব্যবস্থা করতে হবে। এবং এই শিবিরগুলিতে যথাযথ খাদ্যের বন্দোবস্তের পাশাপাশি নিয়মিত নজরদারির দাবি-সহ মোট ১৫দফা দাবিতে এদিন ঘাটাল পৌরসভায় ডেপুটেশন দিল ঘাটাল কংগ্রেস নেতৃত্ব।

 

 

এদিনের ঘাটাল শহর কংগ্রেসের পক্ষ থেকে ডেপুটেশনে উপস্থিত ছিলেন কৌশিক গোস্বামী, কোনি আনসারি, কেনা মহাপাত্র, দেবপ্রসাদ চৌধুরী, পাপন ঘোষাল প্রমুখরা। এদিনের বিক্ষোভ কর্মসূচিতে শহরের জলনিকাশি ব্যবস্থা নিয়েও সরব হন তাঁরা। শহরের যুব কংগ্রেসের সভাপতি কোনি আনসারি জানান, প্রতি বছর বর্ষা এলেই চূড়ান্ত দুর্ভোগের শিকার হন ঘাটাল শহরবাসী। তাই এদিন আসন্ন বর্ষায় ত্রাণ ও অন্যান্য উন্নয়নমূলক কাজে সর্বদলীয় কমিটি গঠনের পাশাপাশি শহরের নিকাশিসমস্যা ও নদীবাঁধ রক্ষণাবেক্ষণের বিষয়ে আগাম পদক্ষেপ করার দাবি তুলেছেন তাঁরা।

 

 

এদিনের ১৫ দফা দাবির মধ্যে অন্যান্য উল্লেখযোগ্য দাবিগুলো হল জলকর স্থগিত করতে হবে। পানীয় জল সরবরাহের সময়সীমা বাড়াতে হবে। পৌরসভার সাফাইকর্মীদের বেতনবৃদ্ধি, ঘাটাল শহরের গুরুত্বপূর্ণ এলাকাগুলি বারবার স্যানিটাইজ করার দাবিও তুলেছে এদিন কংগ্রেসের প্রতিনিধি দল। শহরের ১নং ওয়ার্ড থেকে ৭নং ওয়ার্ড পর্যন্ত নির্মায়মান রাস্তাটির স্বচ্ছতা সম্পর্কে অভিযোগ তুলে এদিন শ্বেতপত্র প্রকাশের দাবি জানিয়েছেন তাঁরা।

 

 

এদিন শহরের পৌরভবনের সামনে অবস্থান বিক্ষোভে সামিল হন ঘাটাল শহর কংগ্রেসের নেতৃত্ববৃন্দ। এরপর ১৫দফা দাবি সম্বলিত স্মারকলিপিও দেওয়া হয়। এদিন উপস্থিত নেতৃত্ববৃন্দ বলেন, আজকের দাবিগুলোর বিষয়ে পৌরসভা অবিলম্বে যথাযথ পদক্ষেপ নিক। নাহলে আগামী দিনে দল বৃহত্তর আন্দোলনে নামবে বলে হুঁশিয়ারিও দিয়ে রেখেছেন তাঁরা।

Related Articles

Back to top button
Close