fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

দেশজুড়ে হিংসার বাতাবরণে শুধু পশ্চিমবঙ্গ নিয়েই নালিশ কেন? ধনকরকে কটাক্ষ মান্নানের

অভিষেক গঙ্গোপাধ্যায়, কলকাতা: দেশ জুড়ে হিংসা ও অশান্তির বাতাবরণ। তবু পশ্চিমবঙ্গ কে নিয়ে নালিশ কেন? তোপ দাগলেন বর্ষিয়ান কংগ্রেস নেতা তথা কংগ্রেস পরিষদীয় নেতা আব্দুল মান্নান। শুক্রবার এক সাক্ষাৎকারে তিনি রাজ্যপাল জগদীপ ধনকরের দিল্লিতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এর কাছে নালিশ জানানোয় তীব্র প্রতিক্রিয়া জানান। সম্প্রতি রাজ্যপাল ধনকর দিল্লিতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর কাছে রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে অভিযোগ জানিয়ে ছিলেন। একই সঙ্গে তিনি সংবাদমাধ্যমে রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা সহ একাধিক ইস্যু নিয়ে মুখ খুলে ছিলেন। তারপরেই শাসক দল থেকে শুরু করে রাজ্যের বিরোধীদল সবাই একে একে মুখ খোলে। এবার এই ইস্যুতেই রাজ্যপালকে আক্রমণ করলেন বর্ষিয়ান কংগ্রেস নেতা আব্দুল মান্নান।

এ প্রসঙ্গে মান্নান বলেন, ‘কেন্দ্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করে রাজ্যপাল রাজ্যের যে চিত্র তুলে ধরেছেন সে সম্পর্কে বলতে গেলে বলতে হয় পশ্চিমবঙ্গ ভারতবর্ষে ব্যতিক্রমী রাজ্য নয়। সারা ভারতবর্ষে যা ঘটছে পশ্চিমবঙ্গ তাই ঘটছে। উত্তরপ্রদেশে, হরিয়ানায়, বিভিন্ন রাজ্যে বিহারে এবং বিজেপি শাসিত রাজ্য গুলির অবস্থা আমরা দেখতে পাচ্ছি। সম্প্রতি আমরা দেখেছি হাতরসের ঘটনাও দেখেছি। মাননীয় কেন্দ্রীয় সরাষ্ট্র মন্ত্রী যখন বিবেচনা করবেন তার আগে আদিত্যনাথ যোগীকে অপসারিত করা উচিত।’

অন্যদিকে মান্নান এদিন অভিযোগ করেন রাজ্যবাসীর মন ভোলাতে তৃণমূল -বিজেপির এই মিথ্যে বিরোধিতা চলছে। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘বিজেপি এবং তৃণমূল কংগ্রেসের এটা মিলিত এজেন্ডা। যখন তারা দেখবে মানুষের কাছে উপেক্ষিত, তখন মানুষের ক্ষোভ থেকে বাঁচার জন্য নিজেদের মধ্যে এমন লড়াই করবে যাতে মানুষ বিভ্রান্ত হয়ে গিয়ে বিভক্ত হয়ে যায়। যাতে মানুষ তৃণমূল বা বিজেপি তে ভাগ হয়ে যায়। এখানেও ঠিক তাই হচ্ছে। তৃণমূল-বিজেপি এ টিম ও বি টিম হিসেবে কাজ করছে। উদ্দেশ্য মানুষের চোখে ভালো হওয়া। একে অপরের বিরুদ্ধে এই বিরোধিতা শুধু নাটক। আসলে যদি কিছু করার হতো তবে চিটফান্ডের টাকা নিয়ে সরব হচ্ছে না কেন? চিটফান্ডের দোষীদের কড়া শাস্তির ব্যবস্থা করা হচ্ছে না কেন? এসব করে মানুষকে বিভ্রান্ত করা যাবে না।’

Related Articles

Back to top button
Close