fbpx
কলকাতাহেডলাইন

সোমেনের মৃত্যু জোট প্রক্রিয়ার বাধা হবে না: প্রদীপ ভট্টাচার্য

অভিষেক গঙ্গোপাধ্যায়, কলকাতা: থামছে না বাম কং জোট প্রক্রিয়া। সাফ জানিয়ে দিলেন কংগ্রেস সাংসদ প্রদীপ ভট্টাচার্য। শুক্রবার এআইসিসি -র পর্যবেক্ষক গৌরব গগৈকে পাশে বসিয়ে সে কথা স্পষ্ট করলেন বর্ষিয়ান কংগ্রেস সাংসদ।

 

বৃহস্পতিবারই প্রয়াত হয়েছেন প্রিয় নেতা সোমেন মিত্র। আর তারপর থেকেই নানা মহলে গুঞ্জন উঠতে শুরু করে, সোমেন মিত্র চিরবিদায়ের সঙ্গে সঙ্গেই হয়তো বাম কং জোটের যবনিকা পরল। কারণ বাম ও কংগ্রেসের এই জোট প্রক্রিয়ায় দলের মধ্যে সবথেকে বেশি প্রভাবিত ছিলেন সোমেন মিত্র। তাই তার মৃত্যুতে সাময়িকভাবে এটাই ধরে নেয়া হয়েছিল যে আগামী দিনের জোটের প্রক্রিয়া হয়তো চমকে গেল। দলের তরফে এদিন তা স্পষ্ট করে দিলেন প্রদীপ ভট্টাচার্য।

 

প্রদীপ বাবু বলেন, ‘যেভাবে সোমেন মিত্র বামফ্রন্টের সঙ্গে যৌথ আন্দোলনের কর্মসূচি পালন করে এসেছেন সেই পথেই প্রদেশ কংগ্রেস চলবে। তাঁর পথেই বাম দলগুলির সঙ্গে নির্বাচনের সমঝোতাও গড়ে উঠবে।’
এ প্রসঙ্গে গৌরব গগৈ বলেন, ‘সোমেন মিত্র যে উচ্চতায় পৌঁছে গিয়েছিলেন, সেখানে পৌঁছন সত্যিই শক্ত কিন্তু তাঁর স্বপ্ন গুলো আমাদেরই পূরণ করতে হবে।’

দিল্লি থেকে কলকাতার সরাসরি বিমান নেই বলে, তিনি সোমেন মিত্রের শেষকৃত্যে যোগ দিতে পারেননি কিন্তু গতকালই তাঁর দিল্লী থেকে গৌহাটি হয়ে কলকাতার বিমান পৌঁছয় সন্ধ্যা ৭:৩০ টায়। বিমান বন্দর থেকেই তিনি এআইসিসি -র সম্পাদক বি পি সিং কে সঙ্গে নিয়ে সোজাসুজি সোমেন মিত্রের বাসভবনে পৌঁছন। সেখানে সোমেন মিত্রের স্ত্রী শিখা মিত্র এবং পুত্র রোহন মিত্রের সঙ্গে সঙ্গে দেখা করেন। এদিন সকাল থেকেই প্রদেশ কংগ্রেসের কাজ নতুনভাবে শুরু করার জন্য বাংলার অনেক কংগ্রেস নেতার সাথে তিনি কথা বলেন। গৌরভ আরো বলেন, ‘শীঘ্রই আবার সবার সাথে কথা বলে, সবার মতামত নিয়ে রাজ্য কংগ্রেসের ভবিষ্যতের সংগঠনের রূপরেখা এআইসিসিতে দলের নেতৃত্বকে জানিয়ে দেওয়া হবে।’

 

এদিন রাজ্যের নেতারা তাঁকে দ্রুত সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য অনুরোধ করেন। পাশাপাশি এআইসিসি -র সম্পাদক বি পি সিং সোমেন মিত্রের দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনের কথা স্মরণ করেন। প্রয়াত প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্রের সম্মানে রাজ্য কংগ্রেসের সব রাজনৈতিক কর্মকান্ড আগামী ৭ দিনের জন্য স্থগিত রাখার পরামর্শ দিয়েছেন প্রবীণ কংগ্রেস নেতা এবং সাংসদ প্রদীপ ভট্টাচার্য।

 

দলের প্রত্যেকটি নেতা ও কর্মীর কাছে তাঁর বার্তা, এই সাতদিন রাজ্যের প্রতিটি শহর এবং ব্লকে সোমেন মিত্রের স্মরণ সভার আয়োজন করুন। প্রত্যেক দলীয় অফিসে দলের পতাকা অর্ধনমিত রাখার পরামর্শ দিয়েছেন। প্রদেশ কংগ্রেসও সোমেন মিত্রের স্মরণসভার প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে। সামাজিক দূরত্ব মেনে কিভাবে এই অনুষ্ঠান করা হবে সেটা নিয়েও আলোচনা চলছে। চূড়ান্ত হলেই তারিখ জানিয়ে দেওয়া হবে।

Related Articles

Back to top button
Close