fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

চিনের প্রেসিডেন্টের কুশপুত্তলিকা পুড়িয়ে মৌনমিছিলের মাধ্যমে শহিদদের শ্রদ্ধা কংগ্রেসের

শান্তনু অধিকারী, সবং: সম্প্রতি লাদাখে শহিদ হয়েছেন দেশের ২০জন বীর জওয়ান। সীমান্তে চিনের অবৈধ আগ্রাসন প্রতিরোধ করতে গিয়ে প্রাণ দিয়েছেন তাঁরা। মোমবাতি জ্বালিয়ে, মৌনমিছিলের মাধ্যমে দেশের সেই বীর শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানালো ঘাটাল শহর কংগ্রেস। পোড়ানো হল চিনের প্রেসিডেন্টের কুশপুত্তলিকাও।

 

                  আরও পড়ুনঃ করোনাভাইরাসের টিকা আবিষ্কার! দাবি এই দেশের বিজ্ঞানীদের

এদিন শহরের কুশপাতা থেকে ঘাটাল-পাঁশকুড়া বাসস্ট্যান্ড পর্যন্ত মৌনমিছিলের আয়োজন করা হয় শহর কংগ্রেসের পক্ষ থেকে। বর্তমানের সামাজিক দূরত্ব বিধি বজায় রেখেই এদিনের মিছিলে সামিল হন প্রায় শতাধিক মানুষ। দেশের বীর শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে এদিন উপস্থিত ছিলেন ঘাটাল শহর কংগ্রেসের যুবসভাপতি কোনি আনসারি, পিসিসি সদস্য জগন্নাথ গোস্বামী, কৌশিক গোস্বামী, সুপ্রিয় বেরা, বিভূতিরঞ্জন মহাপাত্র, কেনা মহাপাত্র প্রমুখরা।

 

              আরও পড়ুনঃ ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধি, দেখা মিলছে না বাসের, দুর্ভোগ বাড়ছে যাত্রীদের

কোনি আনসারি বলেন, ‘দেশ হারিয়েছে ২০ জন বীর যোদ্ধাকে। কেউ হারালেন ছেলেকে, কেউ ভাই, কেউ বা বাবা-কে। আমরা বাকরুদ্ধ, ভাষাহীন। আসমুদ্রহিমাচল ওই স্বজনহারা পরিবারগুলোর পাশে রয়েছে। তাঁরাই তো দেশের প্রকৃত রক্ষাকর্তা।
আমরা যাতে নিশ্চিন্তে ঘুমোতে পারি, সেটা নিশ্চিত করেন ওই মানুষগুলোই। আমাদের সুরক্ষা দিতে শত্রু দেশের বুলেটের সামনে বুক পেতে দেন ওঁরাই। তাঁদের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি জানাতেই আজকের এই মৌন মিছিলের আয়োজন।’ এদিনের মিছিলের শেষে ঘাটাল-পাঁশকুড়া বাসস্ট্যান্ডে চিনের প্রেসিডেন্টের কুশপুত্তলিকাতে অগ্নি সংযোগ করা হয়।

Related Articles

Back to top button
Close