fbpx
কলকাতাপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

হাসপাতালের গাফিলতিতে মৃত্যু করোনা আক্রান্ত শুভ্রজিতের, বিচার চেয়ে আদালতের দ্বারস্থ বাব-মা

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত শুভ্রজিতের পরিবার হাইকোর্টের দ্বারস্থ। চিকিৎসার গাফিলতিতে ইছাপুরের যুবক শুভ্রজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের মৃত দেহের ময়নাতদন্ত ও বিনা চিকিৎসায় মৃত্যুর নিরপেক্ষ তদন্ত চেয়ে মঙ্গলবার কলকাতা হাইকোর্টে যায় শুভ্রজিৎ এর পরিবার। এদিনই জরুরি ভিত্তিতে মামলার শুনানি সম্ভাবনা রয়েছে কলকাতা হাইকোর্টে।

আদালত সূত্রে জানা গিয়েছে, যেহেতু হাইকোর্ট প্রশাসনের সিদ্ধান্তে বন্ধ রয়েছে আদালতের যাবতীয় কাজকর্ম তাই জরুরি ভিত্তিতে এই মামলার শুনানির জন্য যোগাযোগ করা হয়েছে প্রধান বিচারপতি সচিবালয়ের সঙ্গে।

জানা গিয়েছে, পুলিশি নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগে অনলাইনে ইমেইল মারফত পাঠানো হয়েছে পিটিশন। জরুরি ভিত্তিতে শুনানির আর্জি জানানো হয়েছে। সেই আবেদনের ভিত্তিতেই এদিন হাইকোর্টে জরুরি শুনানি।

[আরও পড়ুন- বিকেল থেকেই সম্পূর্ণ লকডাউনের ঘোষণা করল কর্ণাটক সরকার]

প্রসঙ্গত, গত দুইদিন আগে পুলিশের হস্তক্ষেপে কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলেও মারা যায় ইছাপুরের করোনা আক্রান্ত বছর আঠারোর যুবক শুভ্রজিৎ চট্টোপাধ্যায়। কিন্তু তাতেও শেষরক্ষা হয়নি না। পরিবারের অভিযোগ, বহুক্ষণ ধরে বিনা চিকিৎসায় পড়ে থাকায় স্বাস্থ্যের চূড়ান্ত অবনতিতে রাতেই মৃত্যু হয় ওই যুবকের। যুবকের মৃত্যুতে প্রশ্ন উঠছে রাজ্যের হাসপাতালগুলোর চূড়ান্ত অব্যবস্থা নিয়ে। রাজ্যে কোনও রোগী যাতে চিকিৎসা পরিষেবা থেকে বঞ্চিত না হন, তার জন্য কড়া নির্দেশ দিয়েছে রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর থেকে রাজ্য প্রশাসন। এমনকি করোনা রোগী ফেরালে হাসপাতালগুলির বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা থেকে লাইন্সেস বাতিলের মত হুমকিও দেওয়া হয়েছে। তা সত্ত্বেও হাসপাতালগুলির বেপরোয়া মনোভাবে ফের অকালে ঝরে গেল একটি তরতাজা প্রাণ!

Related Articles

Back to top button
Close