fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

করোনা আক্রান্ত মহিলা, সীল করা হল পূর্ব মেদিনীপুর জেলার একটি নাসিংহোম

মিলন পণ্ডা, পূর্ব মেদিনীপুর: পূর্ব মেদিনীপুর জেলার কাঁথির পর তমলুকে একটি বেসরকারী নাসিংহোম সীল করা হল। পাঁশকুড়া এক মহিলা নতুন করে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হলেন। শনিবার রাতে মহিলা রির্পোটের করোনা ভাইরাস পজিটিভ আসে। এই ঘটনার সামনে আসার পর আবার নতুন করে পূর্ব মেদিনীপুরে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। রবিবার সকালে প্রথমে মহিলা ভর্তি থাকা ওই বেসরকারী নাসিংহোমটি সীল করে দেওয়া হয়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানাগিয়েছে, ১৯ এপ্রিল পূর্ব মেদিনীপুর জেলার পাঁশকুড়া থানার ৫২ বছর বয়সী ওই মহিলা রক্ত বমি সমস্যা নিয়ে তমলুকে একটি বেসরকারী হাসপাতালে ভর্তি হন। ওই বেসরকারী নাসিংহোমে মহিলাকে রক্ত দেওয়া হয়। মহিলা অবস্থায় অবনতি হলে কোলকাতার নীলরতন হাসপাতালের স্থান্তরিত করা হয়। সেখান থেকে ওই মহিলাকে কোলকাতার বাঙ্গুর হাসপাতালের ভর্তি করা হয়। এরপর ওই মহিলার লালারস সংগ্রহ করে পরীক্ষা জন্য কোলকাতার পাঠানো হয়।

আরও পড়ুন: ইরানের সামরিক উপগ্রহ ‘নুর’ কে ঘিরে তরজায় আন্তর্জাতিক মহল

শনিবার রাতে ওই মহিলার করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত বলে স্বাস্থ্যদপ্তর সূত্রে জানানো হয়। এরপর পূর্ব মেদিনীপুর জেলার স্বাস্থ্যদপ্তরকে জানিয়ে দেয়। রবিবার সকালে স্বাস্থ্যদপ্তর পক্ষ থেকে তমলুকে ওই বেসরকারী নাসিংহোমটি সীল করে দেওয়া হয়। নাসিংহোমে ভর্তি থাকার দুইজনকে রোগীকে তমলুক জেলা হাসপাতালের ভর্তি করা হয়। বাকি রোগীদের ছেড়ে দেওয়া হয়।

পূর্ব মেদিনীপুর জেলার এক স্বাস্থ্য আধিকারিক বলেন, নাসিংহোম আপতত সীল করা হয়েছে। নাসিংহোমে সমন্ত চিকিৎসক ও নার্সদের হোম কেয়ারন্টাইন থাকতে বলা হয়েছে। আক্রান্ত মহিলা পরিবারের সদস্যদের হোম কেয়ারন্টাইন থাকতে বলা হয়েছে। প্রসঙ্গত গত কয়েকদিন আগে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার পাঁচ জন করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হয়েছিলেন। মেচেদার একজন ও হলদিয়ার চার যুবক করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন। পাঁচজন এখন পাঁশকুড়া বড়মা হাসপাতালের চিকিৎসাধীন রয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close