fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

করোনা আক্রান্তের সংখ্যা উর্দ্ধমুখী, দিনহাটায় কনটেনমেন্ট জোন ঘোষণা কোচবিহার প্রশাসনের

সোমা কর, দিনহাটা: করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে চলায় দিনহাটা পুরসভা ও দিনহাটা দুই ব্লক এলাকাকে কনটেনমেন্ট জোন ঘোষণা করল কোচবিহার জেলা প্রশাসন। শুক্রবার কোচবিহারের জেলাশাসক নির্দেশিকা জারি করে জানিয়ে দেন দিনহাটা পুর এলাকা ও দিনহাটা ২ নম্বর ব্লক এলাকাকে কন্টেনমেন্ট জোন ঘোষণা করা হয়েছে।

ওই এলাকায় শুধুমাত্র জরুরি পরিষেবা দেওয়ার জন্য মুদিখানা, সবজি, ওষুধের দোকান ছাড়া পেট্রল পাম্প, ব্যাংক ও কিছু সরকারি দফতর খোলা থাকবে। জরুরি নয় এমন সব দোকান বন্ধ থাকবে। দিনহাটায় ক্রমশ করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলছিল। মূলত দিনহাটা ২ নম্বর ব্লকে সম্প্রতি বেশ কিছু করোনা পজেটিভের রিপোর্ট আসে। দিনহাটা শহরেও করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া যায়।

আরও পড়ুন: করোনা আবহে নতুনত্বের ছোঁয়া… সম্পন্ন  ‘ডিজিটাল ফিল্ম অ্যাওয়ার্ড বাংলা’ পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান

পরিস্থিতি উপলব্ধি করতে পেরে দিনহাটা পুরসভার প্রশাসক উদয়ন গুহ আগে থেকেই সর্বদলীয় বৈঠক ডেকে দোকানপাট খোলার সময় সীমা নির্দিষ্ট করে দেন। গতকাল থেকে পুর এলাকায় পুরোপুরি লকডাউনের পথে হাঁটেন। এদিন তিনি নিজেও স্যোসাল মিডিয়ায় পোস্ট দিয়ে জেলাশাসকের পুর এলাকা ও দিনহাটা ২ নম্বর ব্লক কন্টেনমেন্ট জোন ঘোষণা করার নির্দেশিকা সম্পর্কে স্ট্যাটাস দেন।

এদিকে উত্তরবঙ্গের পাঁচ শহরের সঙ্গে কোচবিহার পুর এলাকাতেও লকডাউন ঘোষণা করেছে নবান্ন।

১৫ জুলাই থেকে কোচবিহারেও লকডাউন শুরু হয়েছে। লকডাউন মানাতে ইতিমধ্যেই মহকুমা প্রশাসন ও পুলিশের পক্ষ থেকে ব্যাপক তৎপরতা শুরু হয়েছে। এদিকে গতকাল নতুন করে কোচবিহারে ৮ জন করোনা আক্রান্ত হয়। এরমধ্যে ৫ জন জেলা প্রশাসনের আধিকারিক রয়েছেন। যারা পরিযায়ী শ্রমিকদের কোয়ারেন্টাইন করার কাজে নিযুক্ত ছিলেন। স্বাভাবিক ভাবেই প্রশাসনের আধিকারিকদের করোনা পজেটিভ হওয়ার খবরে জেলা জুড়ে উদ্বেগ ছড়িয়ে পড়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close