fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

অনলাইনের মাধ্যমে শহরের সব পুজো দর্শনার্থীদের কাছে পৌঁছে দেবে ‘ফোরাম ফর দুর্গোৎসব’

অভীক বন্দ্যোপাধ্যায়, কলকাতা: সকাল থেকে বেরিয়ে কলকাতার সেরা পুজো গুলো ভিড় করে রাত জেগে ধাক্কাধাক্কি করে ঠাকুর দেখে ফিরতেন দর্শনার্থীরা। পুজোর মাসখানেক আগে থেকেই পুজোর ভিআইপি পাস জোগাড়ের হুড়োহুড়ি লেগে যেত। চতুর্থী থেকেই মানুষজন কোন মণ্ডপে বেশি ভিড় করছেন, কাদের থিম, প্রতিমা থেকে আলোকসজ্জা নজরকাড়া, তা নিয়ে শুরু হয়ে যেত জোর টক্কর।

কিন্তু মাত্র মাস তিনেকের করোনা পরিস্থিতি যেন বদলে গিয়েছে গোটা পৃথিবীটাই। ন্যূনতম পুজোর বাজেট জোগাড় করতেই কালঘাম ছুটছে পুজোকর্তাদের। পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে আর যে সেই ভিড় হবে না, তা ইতিমধ্যেই পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে। তাই শহরের মেগাপুজো যেমনই হোক, দর্শনার্থীরা যাতে তা ঘরে বসেই দেখতে পারেন, তার জন্য এবার অনলাইনের মাধ্যমেই তা পৌঁছে দেওয়ার উদ্যোগ নিল ‘ফোরাম ফর দুর্গোৎসব’।

প্রসঙ্গত, ‘ফোরাম ফর দুর্গোৎসব’ এই প্ল্যাটফর্মটি তৈরি হয়েছিল বছর কয়েক আগেই। কলকাতার সেরা ২৫-৩০টি পুজো যাতে একসঙ্গে দর্শকরা দেখতে পারেন, তার জন্য এখানে নির্দিষ্ট মূল্যে পাওয়া যেত পাস। সেই প্ল্যাটফর্ম থেকেই এবার দুর্গা পুজোর মণ্ডপসজ্জা আলোকসজ্জা থেকে প্রতিমা এবং বোধন, আরতি, চণ্ডীপাঠ থেকে বিসর্জন পর্যন্ত সমস্তটাই নিজেদের ঘরে বসেই দেখতে পারবেন প্রত্যেক দর্শনার্থীরা।

প্রসঙ্গত, মহানগরী কলকাতার সবচেয়ে বড় ইভেন্ট দূর্গা পূজার সঙ্গে জড়িয়ে আছে বহু মানুষের রুজি-রোজগার। করোনা পরিস্থিতিতে পুজো বন্ধ করতে না চাইলেও প্রাথমিকভাবে বাজেট কাটছাঁট করছে বেশিরভাগ পুজো কমিটি৷ কিন্তু মানুষ যাতে তাদের সৃষ্ট সেই শিল্পকলার সাথে যুক্ত হতে পারেন, তার জন্যই এই বিকল্প ভেবেছে ‘ফোরাম ফর দুর্গোৎসব’৷
ফোরাম ফর দুর্গোৎসব-এর অন্যতম কর্তা পার্থ ঘোষ বলেন, ‘বাড়িতে বসেই মানুষ যাতে পুজোর আনন্দ কিছুটা অন্তত উপভোগ করতে পারেন, সেই চেষ্টা চলছে। বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে যে পুজো পরিক্রমা দেখানো হয়, এটা কিন্তু তেমন হবে না। একেবারে অন্যভাবে দেখানো হবে কলকাতার বড় বড় পুজোগুলি।’ তিনি জানিয়েছেন, “প্রাথমিকভাবে ঠিক হয়েছে, প্রত্যেক পুজোর জন্য আলাদা আলাদা স্লটে কলাবউ স্নান, মহাষ্টমীর অঞ্জলি, সন্ধিপুজো সব দেখানো হবে অনলাইনে। সরাসরি সম্প্রচারিত হবে চণ্ডীপাঠ, আরতি, অঞ্জলি। দেখানো হবে মণ্ডপ, আলো, প্রতিমা৷”

‘ফোরাম ফর দুর্গোৎসব’ ইতিমধ্যেই অনলাইনের প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে৷ ফোরামের নিজস্ব অনলাইন প্ল্যাটফর্ম ও সোশ্যাল মিডিয়ায় শুরু হচ্ছে ‘পুজোর আড্ডা’। এসব অনুষ্ঠানে বিভিন্ন কমিটির কর্তা, শিল্পীরা অংশ নেবেন। কিছুদিনের মধ্যেই এটা চালু হবে বলে জানিয়েছেন সংগঠনের কর্তারা। তাঁরা বলছেন, অনলাইনে পুজো দেখানোর বিষয়টি প্রাথমিকভাবে ফোরামে আলোচনা হয়ে সম্মতি মিলেছে। ‘ফোরাম ফর দুর্গোৎসব’-এর সাধারণ সম্পাদক শাশ্বত বোস অবশ্য বলেন, “এই অনলাইনে পুজো দেখানোর পরিকল্পনা আমাদের গত বছরই ছিল। প্রবাসী বাঙালিদের জন্য আমরা এই পরিকল্পনা করেছিলাম। কিন্তু কোনও কারণে তা হয়নি। কিন্তু এবার করোনার জন্য এটা বাস্তবায়িত হচ্ছে।”

মানুষ মণ্ডপে পৌঁছতে না পারলেও এবার স্বয়ং মা দুর্গা তার সন্তানদের সঙ্গে এসে হাজির হবেন প্রত্যেকের বাড়ির কম্পিউটারের মাউসের ক্লিকে।

Related Articles

Back to top button
Close