fbpx
গুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

পূর্ব বর্ধমানে এই নিয়ে চতুর্থ জন, করোনায় আক্রান্ত মেমারির যুবক

প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়, বর্ধমান: করোনা আক্রান্তের সংখ্যা উত্তরোত্তর বেড়েই চলেছে পূর্ব বর্ধমানে। খণ্ডঘোষ এবং বর্ধমান শহরের সুভাষপল্লীর পর এবার জেলায় চতুর্থ করোনা পজিটিভ রোগির সন্ধান মিললো মেমারি পুরসভা এলাকায়। এই ঘটনা জানাজানি হতেই রীতিমতো উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন মেমারির বাসিন্দারা।

করোনা পজিটিভ ধরা পড়া বছর ২৩ বয়সী যুবকের বাড়ি মেমারি পুরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ড এলাকায়। শুক্রবার বিকালে রিপোর্ট আসার পরেই নড়েচড়ে বসে পুলিশ ও প্রশাসনের কর্তারা। তারপরেই আক্রান্তকে তাঁর বাড়ি থেকে উদ্ধার করে অ্যাম্বুলেন্সে চাপিয়ে নিয়ে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয় দুর্গাপুরের কোভিড হাসপাতালে। সিল করে দেওয়া হয় আক্রান্তের বাসস্থান সহ গোটা এলাকা। এছাড়াও বাঁশের ব্যারিকেড দিয়ে এলাকায় কারোর ঢোকা বের হওয়া পুরোপুরি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। বিকালেই জীবানুনাশক স্প্রে করা হয় সমগ্র মেমারির সোমেশ্বরতলা এলাকায়। ওই জায়গায় পাহারাদারির জন্য মোতায়েন করা হয়েছে বিশাল পুলিশ বাহিনী।

জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, মেমারি পুরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ড এলাকা নিবাসী যুবক মেমারি শহরের একটি কম্পিউটার সেন্টারের প্রশিক্ষক। দীর্ঘদিন ধরে তিনি লিভারের অসুখে ভুগছিলেন। চিকিৎসার জন্য গত ২৮ এপ্রিল তাঁকে কলকাতার মুকুন্দপুরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করে পরিবার। সেদিনই তাঁর লিভারে অস্ত্রোপচার হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন থাকাকালে দু-দফায় তাঁর করোনা পরীক্ষা হয়। সেই পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। এরপর গত মঙ্গলবার ফের যুবকের লালারস পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। তারই মধ্যে বুধবার যুবককে ওই বেসরকারি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ছুটি দিয়ে দেয়। ওই দিনই পরিবারের লোকজন যুবককে মেমারির বাড়িতে নিয়ে চলে আসেন। শুক্রবার দুপুরে যুবকের করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসে।

জেলাশাসক বিজয় ভারতী এদিন জানান, ‘’জেলায় চতুর্থ করোনা আক্রান্ত ধরা পড়ল মেমারিতে। ওই যুবককে দুর্গাপুরের কোভিড হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছে।
এছাড়াও যুবকের সংস্পর্শে আসা পাঁচ জনকে বর্ধমানের গাংপুরের বেসরকারি কোভিড-১৯
হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বর্ধমানের সুভাষপল্লীর আক্রান্ত মহিলার সংস্পর্শে থাকা পাঁচ জনের করোনা পরীক্ষা রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। ”

Related Articles

Back to top button
Close