fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

ত্রাণ দেওয়ায় স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার সদস্যদের গ্ৰেফতার বীরভূমে

প্রদীপ্ত দত্ত, সিউড়ি: লকডাউনের প্রথম দিন থেকেই গরীব মানুষের জন্য কাজ করে চলেছে সিউড়ির স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা নতুন আলোর সদস্যরা। মহম্মদ বাজারের বাইন পাড়ায় ত্রাণ দেওয়ার সময় মহম্মদ বাজার থানা নতুন আলোর সদস্যদের গ্রেফতার করে। অভিযোগ নতুন আলোর সদস্যরা বিজেপি ও আর এস এস সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত। যদিও নতুন আলো সম্পূর্ণ অরাজনৈতিক সংস্থা।

লকডাউনের প্রথম পর্ব থেকে চতুর্থ পর্ব পর্যন্ত নতুন আলো, সিউড়ি শহর সহ জেলার বিভিন্ন ব্লকে নিয়মিত গরিব মানুষের জন্য খাবার সরবরাহ সহ নানান প্রয়োজনীয় দ্রব্য বিতরণ করে চলেছে। সংস্থার সদস্যরা সিউড়ি শহরের অসুস্থ, হাঁটাচলায় অক্ষম বৃদ্ধ বৃদ্ধাদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে খাবার থেকে ওষুধ পৌঁছে দিচ্ছে।

এমন একটি সংস্থার সদস্যদের ত্রাণ দেওয়ার সময় থানায় নিয়ে গিয়ে কেন গ্রেফতার করা হল এই নিয়ে উঠছে প্রশ্ন।
নতুন আলো সংস্থার সম্পাদক জানান , “গতকাল মহম্মদ বাজারের বাইন পাড়ায় তাঁরা ত্রাণ বিলি করছিলেন। এমন সময় মহম্মদ বাজার থানা সেই ত্রাণ বিলিতে বাঁধা দেয়। যদিও বিডিওর অনুমতি আমাদের ছিল। এরপরই আমরা থানায় যাই। অভিযোগ করা হয় আমরা বিজেপি ও আর এস এস সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত। আমরা থানাকে জানাই যে, আমাদের দলের সদস্যরা ভিন্ন ভিন্ন রাজনৈতিক মতাদর্শে বিশ্বাসী হলেও নতুন আলো সম্পূর্ণ একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন।

তারপরও তাদের বিরুদ্ধে এফ আই আর দায়ী করা হয় । এবং দীর্ঘ সময় ধরে থানায় বসিয়ে রাখা হয় “।

সেইসঙ্গে তিনি জানান , এরপর বিজেপির জেলা সভাপতি শ্যামাপদ মন্ডল সহ জেলার নানা স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার সদস্যরা এসডিওকে আবেদন জানান আমাদের মুক্তির ব্যাপারে। এরপরই আমাদের ছেড়ে দেওয়া হয় ।
তিনি আরও জানান নতুন আলো সম্পূর্ণ অরাজনৈতিক সংস্থা। জাতি, ধর্ম
তিনি আরও জানান নতুন আলো সম্পূর্ণ অরাজনৈতিক সংস্থা। জাতি , ধর্ম নির্বিশেষে সকল গরিব মানুষের পাশে তাঁরা আছেন এবং থাকবেন।

Related Articles

Back to top button
Close