fbpx
দেশহেডলাইন

কম দৈনিক সংক্রমণ, করোনায় মৃতের সংখ্যাও কমল

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: দৈনিক সংক্রমণের পাল্লা কমল। এবার তা পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে চলে আসার ইঙ্গিত মিলছে। প্রায় নিয়মিতভাবে কমছে দেশের দৈনিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। যার ব্যতিক্রম হল না সোমবারও। এদিন দেশে নতুন করে করোনার কবলে পড়লেন মাত্র ৫৫ হাজার মানুষ। যা গত কয়েক সপ্তাহের মধ্যে সর্বনিম্ন। সেই সঙ্গে কমেছে মৃতের সংখ্যাটাও।

মঙ্গলবার সকালে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের দেওয়া পরিসংখ্যান বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৫৫ হাজার ৩৪২ জন করোনা  আক্রান্ত হয়েছেন। যা আগের দিনের থেকে প্রায় সাড়ে ১১ হাজার কম। ফলে দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭১ লক্ষ ৭৫ হাজার ৮৮১ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় মৃতের সংখ্যাটাও অনেকটা কমেছে। স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের দেওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে মৃত্যু হয়েছে ৭০৬ জনের। ফলে দেশে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১ লক্ষ ৯ হাজার ৮৫৬ জন।

আরও স্বস্তির খবর হল, দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন প্রায় ৭৮ হাজার মানুষ। অর্থাৎ আক্রান্তের তুলনায় অনেকটা বেশি সুস্থ রোগীর সংখ্যা। এই মুহূর্তে দেশে মোট করোনাজয়ীর সংখ্যা ৬২ লক্ষ ২৭ হাজার ২৯৬ জন। সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৮ লক্ষ ৩৮ হাজার ৭২৯ জন। যা আগের দিনের তুলনায় অনেকটা কমেছে। এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা পরীক্ষা হয়েছে প্রায় ১১ লক্ষ মানুষের। স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডক্টর হর্ষবর্ধন বলেছিলেন, দেশে কোভিড টেস্ট অনেক বেড়েছে। ১৮০০-র বেশি ল্যাবরেটরিতে করোনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। দৈনিক ১৫ লাখ কোভিড টেস্টের পরিকল্পনা করা হয়েছে। ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিক্যাল রিসার্চ (আইসিএমআর)-এর হিসেবে এ যাবত্‍ দেশে ৮ কোটি ৮৯ লাখ করোনা পরীক্ষা হয়েছে। গতকালই নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১০ লাখ ৭৩ হাজার।

আরও পড়ুন: নির্বাচনী দৌড়ে ফিরেই উল্লাস ‘করোনামুক্ত’ ট্রাম্পের

দৈনিক সংক্রমণ বৃদ্ধির হার কমলেও, দেশের পাঁচ রাজ্যের করোনা গ্রাফ চিন্তার কারণ। স্বাস্থ্যমন্ত্রক জানাচ্ছে, কেরল, ছত্তীসগড়, উত্তরাখণ্ড, ওড়িশা ও মধ্যপ্রদেশে গত ১৩ সেপ্তেম্বর থেকে ৪ অক্টোবরের মধ্যে সংক্রমণের হার মাত্রাতিরিক্তভাবে বেড়ে গেছে। এই সময়ের মধ্যে কেরলে সংক্রমণ বৃদ্ধি পেয়েছে ১১২%, ছত্তীসগড়ে ৯৩%, উত্তরাখণ্ডে ৬১%, ওড়িশা ও মধ্যপ্রদেশে ৫৪%। কেরলে কোভিড অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যাও বেশি। গত ২৪ ঘণ্টায় কেরল ও মহারাষ্ট্রে নতুন সংক্রমণ ধরা পড়েছে ৭ হাজারের বেশি। তবে কিছু রাজ্যে সংক্রমণের হার আগের থেকে কমেছে। যেমন বিহারে, তামিলনাড়ু, গুজরাট, অন্ধ্রপ্রদেশ, তেলঙ্গানায় একসময় কোভিড গ্রাফ বাড়লেও এখন সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার হার তুলনায় কমেছে। মহারাষ্ট্রে করোনা সংক্রমণ কমার কোনও লক্ষণ দেখা যায়নি। আক্রান্তের সংখ্যার নিরিখে এখনও শীর্ষেই রয়েছে এই রাজ্য। আক্রান্ত বৃদ্ধির হার ৩৬%। মহারাষ্ট্রের পরেই কর্নাটকে আক্রান্তের হার বেড়েছে ৩৯%।

 

Related Articles

Back to top button
Close