fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

দেশে একদিনে করোনার কবলে ৭৬ হাজারেরও বেশি মানুষ

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: দিন যত গড়াচ্ছে, ততই করোনার থাবা আরও জোড়ালো হচ্ছে। ভারতে ৩৪ লক্ষের গণ্ডি ছাড়িয়ে গেল করোনা-সংক্রমণ।আগস্ট মাসের শুরু থেকেই বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে দ্রুত হারে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে ভারতে। এই মুহূর্তে দেশের সংক্রমণের গতি অন্যান্য দেশের ধরাছোঁয়ার বাইরে। গত কয়েকদিনে ২৪ ঘন্টার নিরিখে আক্রান্তের সংখ্যা পেড়িয়েছে ৭০-এর ঘর।

শনিবার সকালে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের দেওয়া পরিসংখ্যান বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৭৬ হাজার ৪৭২ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। যা গতকালের থেকে হাজারখানেক কম। ফলে দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৪ লক্ষ ৬৩ হাজার ৯৭৩ জন। পরিসংখ্যান বলছে গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থও হয়েছেন ৬৫ হাজারের বেশি মানুষ। ফলে দেশে মোট করোনাজয়ীর সংখ্যা গিয়ে দাঁড়িয়েছে ২৬ লক্ষ ৪৮ হাজার ৯৯৯ জন। তবে দেশে এখনও প্রায় ৭ লক্ষ ৫২ হাজার ৪২৪ জন করোনা রোগী চিকিৎসাধীন।

সংক্রমণের নিরিখে এখনও তৃতীয় স্থানে থাকলেও, প্রথম এবং দ্বিতীয় স্থানে থাকা আমেরিকা এবং ব্রাজিলের থেকে দেশের দৈনিক সংক্রমণ বৃদ্ধির গতি এখন অনেকটাই বেশি। তাছাড়া মোট সংক্রমণের নিরিখেও ব্রাজিলকে প্রায় ছুঁয়ে ফেলার মুখে ভারত। এই মুহূর্তে ব্রাজিল এবং ভারতের মোট আক্রান্তের সংখ্যার ফারাক লাখ তিনেক মতো। আর ভারত যে গতিতে এগোচ্ছে তাতে আগামী সপ্তাহেই ব্রাজিলকে টপকে গেলে অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না। তবে, আক্রান্ত বাড়লেও দেশের মৃত্যুহার আরও খানিকটা কমেছে।   গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ২১ জনের। ফলে দেশে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৬২ হাজার ৫৫০ জন। এই মুহূর্তে দেশে মৃত্যুহার ১.৮ শতাংশের আশেপাশে।

আরও পড়ুন: এবার করোনা আক্রান্ত হলেন ‘খেলরত্ন’ কুস্তিগীর ভিনেশ ফোগত

ভারতের কোভিড পরিসংখ্যানে শীর্ষে রয়েছে মহারাষ্ট্র। এখানে আক্রান্তের সংখ্যা ৭,৩৩,৫৬৮। এ যাবত্‍ সংক্রমণে মৃত্যু হয়েছে ২৩,৪৪৪ জনের। সুস্থ হয়েছেন ৫,৩১,৫৬৩ জন। মহারাষ্ট্রে এখন অ্যাকটিভ কেস ১,৭৮,৫৬১। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে তামিলনাড়ু। এখানে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪,০৩,২৪২ জন। কোভিড-১৯ সংক্রমণে মৃত্যু হয়েছে ৬৯৪৮ জনের। সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন ৩,৪৩,৯৩০ জন। তামিলনাড়ুতে এখন অ্যাকটিভ কেস ৫২,৩৬৪।

Related Articles

Back to top button
Close