fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বিজেপি কর্মীদের খুন করে বাংলায় রক্তের হোলি খেলছে আপাদমস্তক দুর্নীতিগ্রস্ত পিসি-ভাইপোর দল: মহাদেব সরকার

শ্যামল কান্তি বিশ্বাস, নদীয়া: তৃনমূলের হার্মাদ বাহিনীর সীমাহীন অত্যাচার ও সন্ত্রাসে বাংলা মা কাঁদছে। একের পর এক মায়ের কোল খালি করে কিংবা বধূর সিঁথির সিঁদুর মুছে দিয়ে রক্তের হোলি খেলায় মেতে উঠেছে আপাদমস্তক দুর্নীতিগ্রস্ত পিসি-ভাইপো সিন্ডিকেটধারী আঞ্চলিক রাজনৈতিক দল তৃণমূল। ঠিক এই ভাষাতেই সাঁড়াশি আক্রমনে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূলকে বিঁধলেন বিজেপি কৃষাণ মোর্চার রাজ্য সভাপতি মহাদেব সরকার।

কল্যাণী থানার অন্তর্গত গয়েশপুরের বিজেপি কর্মী বিজয় শীলের হত্যার প্রতিবাদে আজ রাজ্যজুড়ে চলছে বিজেপির বিক্ষোভ। সেই মত নদীয়া জেলার সমস্ত থানায় ভারতীয় জনতা পার্টির পক্ষ থেকে বিক্ষোভ অবস্থান কর্মসূচি পালন করা হয় এদিন। বিকেল তিনটে থেকে শুরু হওয়া কর্মসূচিতে জেলার প্রতিটি থানায় বিজেপির নেতা কর্মীদের ভীড় ছিল চোখে পড়ার মতো। কৃষাণ মোর্চার রাজ্য সভাপতি মহাদেব বাবু জেলার একাধিক কর্মসূচিতে অংশ নেন।ধুবুলিয়া, কৃষ্ণগঞ্জের পর ভীমপুরের বিক্ষোভ অবস্থান কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে তিনি একের পর এক কড়া ভাষায় রাজ্যের শাসক তৃণমূলকে আক্রমন করেন।

ভীমপুরের কর্মসূচিতে অন্যান্য বক্তাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ২১ নং জেডপি-র মণ্ডল সভাপতি মানিক সরকার, স্থানীয় বিজেপি নেতা শ্যামল সাধূ ও জেলা মহিলা মোর্চার নেত্রী রাধারাণী পাল। কৃষ্ণনগর কোতয়ালী থানার কর্মসূচিতে ও বিজেপি নেতা-কর্মীদের ভীড় ছিল চোখে পড়ার মতো। হাঁসখালি থানায় ৩৮ নং জেডপি-র মণ্ডল সভাপতি তিলক বর্মনের নেতৃত্বে হাঁসখালি থানায় বিজেপি নেতা কর্মীদের স্বতঃস্ফুর্ত অংশগ্রহণে কর্মসূচিটি ব্যাপক ভাবে সফল হয়।

Related Articles

Back to top button
Close