fbpx
একনজরে আজকের যুগশঙ্খদেশহেডলাইন

দুর্নীতিবাজ যতই ক্ষমতাশালী হোক, শাস্তি হবেই: মোদি

নিজস্ব প্রতিনিধি: দুর্নীতির বিরুদ্ধে বরাবরই সরব প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বিভিন্ন সময় দুর্নীতি রুখতে একাধিক পদক্ষেপ করেছে কেন্দ্রের মোদি সরকার। এবার দুর্নীতির বিরুদ্ধে ফের একবার কড়া বার্তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী। তাঁর সরকার যে কোনও ভাবেই দুর্নীতিবাজদের রেয়াত করবে না, সেটা বুঝিয়ে দিলেন তিনি। সেন্ট্রাল ভিজিল্যান্স কমিশন এবং সেন্ট্রাল ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশনের  কনফারেন্সে দুর্নীতি প্রসঙ্গে নরেন্দ্র মোদি সাফ জানালেন, দুর্নীতিবাজরা যতই ক্ষমতাশালী হোক না কেন, বর্তমান সরকার তাদের ক্ষমা করবে না। তাদের শাস্তি হবেই।

বুধবার দিল্লি থেকে ভার্চুয়ালি ওই কনফারেন্সে যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, “এখন দেশবাসী বিশ্বাস করেন যে লুঠবাজরা যতই ক্ষমতাশালী হোক না কেন, তাদের ক্ষমা করা হবে না। সরকার তাদের ছাড়বে না।” তিনি আরও বলেন, “শেষ ৬-৭ বছরের চেষ্টায় আমরা মানুষের মধ্যে এই বিশ্বাস তৈরি করতে সমর্থ হয়েছি। এখন মানুষ ভাবতে পারেন যে মধ্যস্থতাকারী ছাড়াও কেউ সরকারি সুবিধা পেতে পারেন।” উল্লেখ্য ২০১৪ সালে কেন্দ্রে ক্ষমতায় আসার পরপরই দুর্নীতির বিরুদ্ধে জেহাদ ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী।

ঘুষ দেওয়া-নেওয়া প্রসঙ্গে সরকারের অবস্থান স্পষ্ট করতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী বারবার বলেছেন, ‘না খায়েঙ্গা, না খানে দুঙ্গা’। সেই সঙ্গে কড়া বার্তা দিয়েছেন মধ্যস্থতাকারীদের বিরুদ্ধে। তাতে গরিব মানুষ কতটা ক্ষতিগ্রস্ত হন, সেই প্রসঙ্গ বহুবার উত্থাপন করেছেন তিনি। অর্থাৎ বিভিন্ন ক্ষেত্রে কেন্দ্রীয় সরকারের স্বচ্ছ ভাবমূর্তির বিষয়টি বারবার স্পষ্ট করেছেন প্রধানমন্ত্রী। সে ব্যাপারে পূর্বতন কংগ্রেস সরকারকেও ধারাবাহিক ভাবে নিশানা করেছেন তিনি। সেই সূত্রে এদিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তাঁর বক্তৃতায় ফের পূর্বতন কংগ্রেস সরকারকে একহাত নিয়েছেন। তিনি দাবি করেন, আগের সরকারের মধ্যে রাজনৈতিক এবং প্রশাসনিক উদ্যোগ কম ছিল। সেজন্যই দুর্নীতি দমনে ওই সরকার সমর্থ হয়নি। তাই কংগ্রেস আমলে প্রচুর দুর্নীতি হয়েছে বলে দাবি করেছেন তিনি। মোদির কথায়, বর্তমান কেন্দ্রীয় সরকার দুর্নীতি দমনে অসম্ভব সক্রিয়। তাই কোনও ভাবেই দুর্নীতিকে প্রশ্রয় দেবে না কেন্দ্রীয় সরকার। কনফারেন্সে এদিন সেই বিষয়টি অত্যন্ত জোরের সঙ্গে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

Related Articles

Back to top button
Close