fbpx
কলকাতাহেডলাইন

উঠছে না খরচ, বন্ধ হয়ে গেল মেনোকা, প্রাচী, ইন্দিরা, সহ বেশ কয়েকটি সিনেমা হল

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: বন্ধ হয়ে গেল মেনোকা, প্রাচী, ইন্দিরা, অশোকা, জয়া, প্রিয়া, ডাকবাংলো( বারাসাত), বায়োস্কোপ (দূর্গাপুর)- এর মতো সিঙ্গেল স্ক্রিনগুলি। করোনার জেরে হল চালানোর খরচটুকু পর্যন্ত উঠে আসছে না, তাই বাধ্য হয়েই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া বলেই জানাচ্ছেন বেশিরভাগ সিনেমা হলের মালিকরা।

উল্লেখ্য, করোনা পরিস্থিতির পর দীর্ঘ কয়েক মাস দেশব্যাপী সমস্ত সিনেমা হলগুলি বন্ধ থাকার পর গত ১৫ অক্টোবর রাজ্যের সমস্ত সিনেমা হল গুলি খুলে দেওয়ার নির্দেশিকা জারি করে রাজ্য সরকার। তবে এক্ষেত্রে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে তা স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়। কিন্তু স্বাস্থ্যবিধি মানতে গেলে বিপুল পরিমাণে খরচ বহন করতে হচ্ছিল সিনেমা হল কর্তৃপক্ষদের। মাল্টিপ্লেক্সগুলি এই ব্যয় বহন করতে সক্ষম হলেও চাপ বাড়ছিল সিঙ্গেল স্ক্রিন মালিকদের ওপর।

আরও পড়ুনঃ বিয়ের অনুষ্ঠানে ১০০ জনের বেশি হলেই ২৫ হাজার টাকা জরিমানা, ঘোষণা রাজস্থান সরকারের

এ  বিষয়ে প্রিয়া সিনেমা হলের মালিক অরিজিৎ দত্ত জানিয়েছেন, কোভিড পরবর্তী সময়ে প্রতিদিনই সিনেমা দেখার জন্য চার থেকে পাঁচজন সিনেমা হলে আসছে। কিন্তু সিনেমা হল চালাতে গেলে যে পরিমাণ লোক প্রয়োজন তা রাখতে বাধ্য হচ্ছেন হল মালিকেরা। ফলে তাদের বেতন, হলে পরিচর্যা করে লাভের মুখ দেখা তো দূরের কথা, রীতিমত লোকসানে চলতে হচ্ছিল তাদের। তাই তারা এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এবং কর্মীরা যে কদিন কাজ করেছেন তাদের সেই দিনের বেতন দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন এই হল মালিকরা।

টলিপাড়ার এক পরিচালক জানান, বাংলাতে এমন বহু ছবি রিলিজ হয়েছে যেখান থেকে ছবি তৈরীর খরচটুকু তুলতে পারেননি প্রযোজক। মাল্টিপ্লেক্সের দর্শকদের কাছে একটি নির্দিষ্ট ঘরানার বাংলা ছবি অধিক গ্রহণযোগ্য। সেক্ষেত্রে আদ্যপ্রান্তে বাণিজ্যিক বাংলা ছবির ভবিষ্যৎ আগামী দিনে সিঙ্গেল স্ক্রিন বন্ধ হলে কতটা উজ্জ্বল হবে, সেই বিষয়ে প্রশ্ন তুলে দিয়েছেন এই পরিচালক।

Related Articles

Back to top button
Close