fbpx
গুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

ইছাপুর ও শ্যামনগরে করোনার থাবা, চাঞ্চল্য এলাকায়

অলোক কুমার ঘোষ, ব্যারাকপুর : ফের করোনার প্রকোপ উত্তর ব্যারাকপুর ও গারুলিয়া পুরসভা এলাকায় । এবার উত্তর ব্যারাকপুর পুরসভার ১২ নম্বর ওয়ার্ডের ইছাপুর চুনাড়ি পাড়ায় করোনা আক্রান্ত এক রোগীর সন্ধান পাওয়া গেছে । অন্যদিকে গারুলিয়া পুরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের অন্তর্গত শ্যামনগর ফিডার রোড বট তলা এলাকায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হলেন আক্রান্ত এক যুবক ।

জানাগেছে, কলকাতার এক বেসরকারি হাসপাতালে পেটের রোগের সমস্যা নিয়ে ইছাপুর চুনারি পাড়ার ওই বৃদ্ধ ভর্তি হয়ে ছিলেন । সেখান থেকে কিছুদিন আগে তাকে ছুটি দিয়ে দেওয়া হলে বাড়িতেই ছিলেন তিনি । এরপর বাড়িতেই জ্বরের উপসর্গ দেখা দেয় তার । তারপর তার লালা রসের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এরপরই ওই বৃদ্ধের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে । এর পর ওই বৃদ্ধকে সোমবার রাতে কলকাতার চিত্ত রঞ্জন হাসপাতালে ভর্তি করা হয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে। প্রশাসন ওই আক্রান্ত রোগীর বাড়িটিকে নতুন সরকারি নির্দেশ অনুসারে কোয়ারেন্টাইন করে দিয়েছে । ওই বাড়ির সদস্যদের বাড়ির বাইরে বেরোতে নিষেধ করা হয়েছে । এলাকাটি জীবাণু মুক্ত করেছে উত্তর ব্যারাকপুর পুরসভা কর্তিপক্ষ । এদিকে এই এলাকার স্থানীয় বাসিন্দারা অভিযোগ করেছেন, আক্রান্ত রোগীর পরিবারের সদস্যরা হোম কোয়ারেন্টাইনের নিয়ম মানছে না । তারা স্বাধীন ভাবে বাড়ির বাইরে বেরিয়ে বিভিন্ন কাজ করছে, রাস্তায় ঘুরছে । স্থানীয় তৃণমূল নেত্রী মধুমিতা ঘোষ বলেন, “ওদের পরিবারের সদস্যদের বেরোতে নিষেধ করা হয়েছে । তাদের জরুরি জিনিস পাড়ার স্বেচ্ছাসেবকরা পৌঁছে দেবে তাদের বাড়িতে । আমি পরিবারের সদস্যদের বুঝিয়েছি এখন ১৪ দিন যেন তারা কেউ বাড়ির বাইরে না বেরোন ।” অন্যদিকে, উত্তর ২৪ পরগনার শ্যামনগরে এবার করোনার থাবা । করোনায় আক্রান্ত হলেন এক যুবক । ঘটনাটি ঘটেছে গারুলিয়া পুরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের শ্যামনগর ফিডার রোড বটতলা মোড় সংলগ্ন এলাকায় । করোনা আক্রান্ত ওই যুবক এক কুরিয়ার সার্ভিস সংস্থায় কাজ করতেন । গত ৩/৪ দিন ধরে জ্বরে ভুগছিলেন ওই যুবক । এরপর তার করোনা পরীক্ষা করা হলে মঙ্গলবার দুপুরে তার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। এরপরেই পুরসভার পক্ষ থেকে করোনা আক্রান্ত ওই রোগীর বাড়ি সংলগ্ন এলাকা জীবাণু মুক্ত করে দেওয়া হয় । ওই রোগীকে বারাসাতে করোনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে । ওই রোগীর বাড়িটি মন ক্যা5 ডেড করেন্টাইন বিল্ডিং ঘোষণা করা হয়েছে । তার পরিবারে সদস্যদের বাড়িতেই হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বলা হয়েছে । স্থানীয় গারুলিয়া পুরসভার পক্ষ থেকে স্থানীয় বাসিন্দাদের আতঙ্কিত না হতে অনুরোধ করা হয়েছে ।

Related Articles

Back to top button
Close