fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

ফ্রান্সের পুনরাবৃত্তি কলকাতায়, মায়ের থেকে সদ্যজাতের দেহে মিলল নোভেলের উপস্থিতি

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: মা করোনা আক্রান্ত হলেও সদ্যোজাত করোনা আক্রান্ত হবে না, এতদিন ধরে এই বিশ্বাস ছিল চিকিৎসকদের। তাদের দাবি ছিল, করোনার ক্ষেত্রে মা থেকে মাতৃজঠরে থাকা শিশুতে ভার্টিক্যাল ট্রান্সমিশন সম্ভব নয়। তবে ফ্রান্সে একবার এই ঘটনা ঘটলেও বিষয়টিকে ব্যতিক্রম হিসেবে বলেছিলেন চিকিৎসকরা। কিন্তু সব ধারণা ভেঙে কলকাতা মেডিক্যাল কলেজে তিন প্রসূতির সদ্যোজাতের করোনা পরীক্ষায় মিলল নভেল করোনা ভাইরাস। ফলে এই ঘটনা যে অসম্ভব, তা আর দাবি করতে পারছেন না চিকিৎসকরা।

কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সুপার ডা. ইন্দ্রনীল বিশ্বাস বলেন বাচ্চাগুলো জন্মানোর ২৪ ঘন্টার মধ্যে তাদের সিক নিউবর্ন কেয়ার ইউনিটের আইসোলেশন ওয়ার্ডে নিয়ে চলে যাওয়া হয়। ওই ওয়ার্ডে আগে থেকে কারোর করোনা সংক্রমণ ছিল না আর থাকার কথাও নয়। কিন্তু এই সদ্যোজাতদোর নমুনা পরীক্ষায় মেলে করোনা সংক্রমণ।

সুপারের দাবি, সাধারণ মানুষের ড্রপলেট থেকে সংক্রমণ হলেও ওই শিশুদের মধ্যে ড্রপলেট সংক্রমণের আশঙ্কা অত্যন্ত ক্ষীণ। কারণ মায়ের জঠরে শিশু একটি বিশেষ তরলের ঘেরাটোপে থাকে। মায়ের পেটে এই তরল ভ্রুণকে নানা বাইরের আঘাত এবং সংক্রমণ থেকে রক্ষা করে। তাহলে প্রশ্ন উঠছে, সেই মাতৃজঠরের তরল অ্যামনিওটিক ফ্লুইড কি ভাইরাস ছিল?
কারণ তা ছাড়া এই সংক্রমণ অসম্ভব। তাছাড়া
এখনও সেই ফ্লুইড পরীক্ষা করার মতো পরিকাঠামো নেই শহরে। তবে এমন ঘটনা ঘটতে থাকলে সে ব্যবস্থাও অচিরেই হবে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

Related Articles

Back to top button
Close