fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

কোভিড ১৯ ভ্যাকসিন প্রথমে দেওয়া হবে ১ কোটি স্বাস্থ্যকর্মীকে: স্বাস্থ্যমন্ত্রক

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতে ১ কোটি স্বাস্থ্যকর্মীকে প্রথমে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। শুক্রবার স্পষ্ট জানাল স্বাস্থ্যমন্ত্রক। এদিন কোভিড নিয়ে সর্বদলীয় বৈঠকে স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তরফে বক্তব্য পেশ করেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যসচিব রাজেশ ভূষণ। তিনি জানান, কোভিড ১৯ ভ্যাকসিন প্রথমে দেওয়া হবে ১ কোটি স্বাস্থ্যকর্মীকে। তারপরে দেওয়া হবে ২ কোটি ফ্রন্টলাইন ওয়ার্কারকে। অর্থাত্‍ যাঁরা সামনের সারিতে থেকে কোভিডের বিরুদ্ধে লড়াই করছেন, তাঁরা দ্বিতীয় দফায় ওই ভ্যাকসিন পাবেন।

 

তাঁদের মধ্যে রয়েছেন পুলিশ ও অন্যান্য সশস্ত্র বাহিনীর কর্মী এবং পুরকর্মীরা। এদিন সকাল সাড়ে ১০ টায় সর্বদলীয় বৈঠক শুরু হয়। সেখানে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী। কংগ্রেসের পক্ষে বক্তব্য পেশ করেন রাজ্যসভার সাংসদ গুলাম নবি আজাদ। এদিকে তৃণমূল কংগ্রেসের তরফে বলেন সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, এনসিপি-র পক্ষে বলেন শরদ পাওয়ার এবং শিবসেনার পক্ষে বলেন বিনায়ক রাউত। এছাড়া এদিনের বৈঠকে ছিলেন কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এবং স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধন। স্বাস্থ্যসচিব রাজেশ ভূষণ ব্যাখ্যা করেন, কোভিড মোকাবিলায় এখনও পর্যন্ত ভারতের কতদূর অগ্রগতি হয়েছে। মোদী বলেন, খুব তাড়াতাড়ি ভারতে কোভিড ভ্যাকসিন চলে আসবে।

 

এই মুহূর্তে ভ্যাকসিনের দাম নিয়ে রাজ্যগুলির সঙ্গে কেন্দ্রের আলোচনা চলছে। পরে তিনি বলেন, ‘কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন তৈরি করার ক্ষেত্রে সাফল্যের বিষয়ে আমাদের বিজ্ঞানীরা আশাবাদী। খুব শিগগির ভ্যাকসিন চলে আসবে। গোটা দুনিয়া সবথেকে কম দামের ও সবথেকে সুরক্ষিত ভ্যাকসিনের দিকে তাকিয়ে রয়েছে। তাই ওরা ভারতের দিকে তাকিয়ে।’ ভারতের করোনা পরিস্থিতি ও ভ্যাকসিন নিয়ে এই নিয়ে দ্বিতীয়বার সর্বদলীয় বৈঠক ডেকেছেন প্রধানমন্ত্রী। গত সপ্তাহে ভারতের তিনটি ভ্যাকসিন প্রস্তুতকারক সংস্থায় যান মোদি। সেখানে গিয়ে ভ্যাকসিন তৈরির প্রক্রিয়া ও তা কোন জায়গায় দাঁড়িয়ে রয়েছে তা খতিয়ে দেখেন তিনি। সেই বিষয়ে এদিন সর্বদলীয় বৈঠক থেকেই দেশবাসীকে আশ্বস্ত করেন মোদি। তিনি বলেন, ‘ভ্যাকসিন বন্টনের দায়িত্ব বিশেষজ্ঞ কমিটির হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। তাঁদের কাছ থেকে পরামর্শ নেওয়া হবে। বেশি সংখ্যায় যাতে ভ্যাকসিন তৈরি করা যায় সেই সুবিধা ভারতে রয়েছে। সত্যি কথা বলতে আমাদের প্রস্তুতি অনেক দেশের থেকে ভাল।’

 

Related Articles

Back to top button
Close