fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

১২৫ বেডের কোভিড-১৯ হাসপাতাল চালু হতে চলেছে মালদা মেডিকেল কলেজে

মিল্টন পাল, মালদা: করোনা সংক্রমনে জেরবার মালদা জেলা। ইতিমধ্যেই করোনা মোকাবিলায় জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় ১৭জুলাই থেকে জেলায় সমস্ত রকম বাজার,যানবাহন বন্ধ রাখা হবে। ব্যবসায়ী সংগঠনের পক্ষ থেকে তাতে সিলমোহরও দেওয়া হয়েছে।

 

 

অন্যদিকে এই প্রথম ১২৫ বেডের কোভিড-১৯ হাসপাতাল চালু হতে চলেছে মালদা মেডিকেল কলেজে। সেই কোভিড হাসপাতলে সংক্রামিত রোগীদের সব ধরনের আধুনিক চিকিৎসা দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে। ২০ জুলাই থেকে কোভিড হাসপাতাল চালু হচ্ছে মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের ট্রমা কেয়ার ইউনিট বিভাগে । এই হাসপাতালটি আপাতত স্থায়ী ভাবে চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষ। ইতিমধ্যে এবিষয়ে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে মালদা মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষ।

করোনা সংক্রমিত রোগীদের চিকিৎসার জন্য এতদিন পুরাতন মালদার ব্লকের মঙ্গলবাড়ী গ্রাম পঞ্চায়েতের নারায়নপুর এলাকার কোভিড-১৯ হাসপাতালে পাঠানো হতো। করোণা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে যাওয়ার কারণে চরম অস্বস্তিতে পড়তে হয়েছে স্বাস্থ্য দপ্তরকে । বহু ক্ষেত্রে করোনা সংক্রমিত রোগীদের হোম আইসোলশনে রেখেই চিকিৎসার পরামর্শ দিয়েছে স্বাস্থ্য দপ্তর । এতে বিভিন্ন মহলে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে সাধারণ রোগীদের স্বাস্থ্যব্যবস্থা দেওয়ার ক্ষেত্রে। এবারে নতুন করে ১২৫ বেডের কোভিড হাসপাতাল চালু করতে চলেছে স্বাস্থ্য দপ্তর। পুরাতন মালদার পর এটি হচ্ছে দ্বিতীয় কোভিড হাসপাতাল। যা চালু হচ্ছে মেডিকেল কলেজের ট্রমা কেয়ার ইউনিট বিভাগে বিল্ডিংয়ে।

স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, পথ দুর্ঘটনায় মুমূর্ষু রোগীদের দ্রুত চিকিৎসা পরিষেবা দেওয়ার ক্ষেত্রে তৈরি হয়েছিল ট্রমা কেয়ার ইউনিট সেন্টারটি। কিন্তু করোনা পরিস্থিতির দিকে লক্ষ্য রেখেই আপাতত সেই ট্রমা কেয়ার ইউনিট ভবনটি কোভিভ হাসপাতলে রূপান্তরিত করা হয়েছে। চারতলা ভবনের আপাতত ১২৫ বেডের এই হাসপাতালটি চালু করা হচ্ছে। সেই বিল্ডিংয়ে করোনা পরীক্ষার লালারসের নমুনা কেন্দ্র খোলা হয়েছে। এই হাসপাতলে আইসিইউ ব্যবস্থার পাশাপাশি ভেন্টিলেটর সিস্টেম সহ অন্যান্য যাবতীয় আধুনিক চিকিৎসা পরিষেবা ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। করোনায় সংক্রামিত রোগীদের এবার থেকে মেডিকেল কলেজের কেয়ার ইউনিট সেন্টার বিভাগের হাসপাতালে রেখে চিকিৎসা পরিষেবা দেওয়া হবে ।
মালদা মেডিকেল কলেজের ভাইস প্রিন্সিপাল ডা: অমিত দাঁ জানিয়েছেন, এতদিন পুরাতন মালদার নারায়ণপুর কোভিড হাসপাতালে করোন আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য ভর্তির ব্যবস্থা করা হচ্ছিল । কিন্তু ২০ জুলাই থেকে মেডিকেল কলেজে নতুন করে ১২৫ বেডের বিভাগ চালু করা হচ্ছে। এক্ষেত্রে রোগীদের চিকিৎসার আধুনিক সমস্ত সুবিধা মিলবে। আধুনিক যন্ত্রপাতি মাধ্যমে সংক্রমিত রোগের চিকিৎসা দেওয়া হবে ।

মালদা মার্চেন্ট চেম্বার অফ কর্মাসের সম্পাদক জানান, জরুরী ভিত্তি জেলা প্রশাসন বৈঠক ডাকে। সেখানে সমস্ত সংগঠনের সদস্যরা উপস্থিত হয়ে করোনা মোকাবিলায় বাজার বন্ধের সিদ্ধান্তকে মেনে নিয়েছেন। সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় ১৭জুলাই থেকে জেলার সমস্ত পৌর বাজার,যান চলাচল বন্ধ থাকবে ২০জুলাই পর্যন্ত। পরবর্তীতে যা সিদ্ধান্ত আসবে সেই মত কাজ করা হবে।

Related Articles

Back to top button
Close