fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

সুরক্ষার দাবিতে আন্দোলনে নামল কোভিড ভলেন্টিয়ার্সরা

নিজস্ব প্রতিনিধি, দিনহাটা : করোনা মোকাবেলায় প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিজ্ঞপ্তি জারি করে কোভিড ভলেন্টিয়ার্স নেওয়া ছাড়াও তাদের পরিচয় পত্র দেওয়া হলেও সুরক্ষার দাবিতে আন্দোলনে নামল কোভিড ভলেন্টিয়ার্সরা। নিজেদের সুরক্ষার দাবিতে এই ভলেন্টিয়ার্সদের আন্দোলনকে ঘিরে আলোড়ন ছড়িয়ে পড়ল ।

বুধবার কোভিড ভলেন্টিয়ার্সদের পক্ষ থেকে দিনহাটা দুই ব্লক সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিকের দফতর চত্বরে অবস্থান-বিক্ষোভ সংগঠিত হয় । এই ভলেন্টিয়ার্স রা নিজেদের সুরক্ষার জন্য স্যানিটাইজার থেকে শুরু করে হ্যান্ড গ্ল্যাবস সহ বিভিন্ন সরঞ্জাম চেয়ে আবেদন জানিয়ে ডেপুটেশন দিতে গেলে ব্লক প্রশাসনের কর্তা তাদের ডেপুটেশন পর্যন্ত নেয়নি বলে অভিযোগ। বাধ্য হয়ে তারা নিজেদের সুরক্ষার দাবিতে আন্দোলনে নামেন। প্রায় ঘন্টা খানেক অবস্থান-বিক্ষোভ চলাকালীন সাহেবগঞ্জ থানার পুলিশ এসে আন্দোলনকারীদের সরিয়ে দেন।

ব্লক প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, এদিন যারা আন্দোলন করছিল তারা ব্লকের কোন ভলেন্টিয়ার্স নয়। এরা নিজেরাই স্বেচ্ছাশ্রম দিয়ে কাজ করে নিজেদেরকে ব্লকের ভলেন্টিয়ার্স বলে দাবি করছে।

 

 

আন্দোলনকারীদের কৌশিক চক্রবর্তী , আমিনুর রহমান, আনোয়ার হোসেন, মৌসুমী খাতুন প্রমূখ জানান করোনাভাইরাস শুরু হতেই মাস দুয়েক আগে ব্লক প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়। সেই বিজ্ঞপ্তি দেখে তারা স্বেচ্ছাশ্রম দেওয়ার জন্য তাদের শিক্ষাগত উপযুক্ত যোগ্যতার প্রমান পত্র সহ আবেদন জানান। পরবর্তীতে জেলা ও ব্লক প্রশাসনের পক্ষ থেকে গ্রাম পঞ্চায়েতের মাধ্যমে তাদেরকে পরিচয় পত্র প্রদান করা হয়। পাশাপাশি তারা বলেন গত প্রায় দুই মাস ধরে পরিযায়ী শ্রমিকদের সুরক্ষার জন্য তারা নিজেদের জীবন উৎসর্গ করে নিরলসভাবে তাদের সেবায় এবং প্রশাসনের সাথে সহযোগিতা করে চলছেন। বর্তমান এই পরিস্থিতিতে যেখানে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমেই বেড়ে চলছে সেখানে তারা নিজেদের এবং পরিবারের সুরক্ষার জন্য ব্লক প্রশাসনের কাছে স্যানিটাইজার থেকে শুরু করে প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি সরবরাহ ও সুরক্ষার জন্য দাবি জানান।

 

 

 

কিন্তু ব্লক প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাদের দাবি মানা হয়নি। উল্টো ব্লকের বিডিও তাদের আবেদন গ্রহণ না করে তাদের পরিচয় পত্র জমা দেওয়ার কথা বলেন বলে অভিযোগ। এদিন ব্লকের সাহেবগঞ্জ এলাকার কোভিড ভলেন্টিয়ার দের অবস্থান আন্দোলনকে ঘিরে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে।
আন্দোলনকারী কৌশিক চক্রবর্তী সহ অন্যান্যরা বলেন তাদের ন্যায্য দাবি প্রশাসনের গাত্রদাহ হয়ে ওঠায় তারা বৃহস্পতিবার থেকে কোনরকম সহযোগিতা আর করবেন না।পাশাপাশি তাদের উপযুক্ত প্রমাণপত্র সহ আগামীতে তারা ফের আন্দোলনে নামবেন। বিজ্ঞপ্তি দিয়ে তাদের কাজের জন্য ডেকে না হলেও এখন তাদের সুরক্ষার জন্য প্রশাসন পিছু হটায় তারা ক্ষোভ প্রকাশ করেন।শিক্ষিত বেকার যুবক যুবতীদেরও নিয়ে বেকারত্বের সুযোগ নিয়ে তাদের  সঙ্গে ছিনিমিনি খেলা হচ্ছে বলে আন্দোলনকারীদের অভিযোগ।

 

 

বিষয়টি নিয়ে দিনহাটা দুই ব্লকের বিডিও জয়ন্ত দত্ত বলেন এরা ব্লকের কোন ভলেন্টিয়ার্স নয়। নিজেরাই স্বেচ্ছাশ্রম দিয়ে কাজ করছে। এদের সাথে ব্লক প্রশাসনের কোনো সম্পর্ক নেই।

Related Articles

Back to top button
Close