fbpx
পশ্চিমবঙ্গ

আন্দোলন-সংগ্রামের মধ্য দিয়েই নতুন বছর শুরু করতে চলেছে বামেরা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: আন্দোলন-সংগ্রামের মধ্য দিয়েই নতুন বছর শুরু করতে চলেছে বামেরা।শ্রমিকদের অধিকার রক্ষা ও কাজের দাবিকে সামনে রেখে আগামী ৮ জানুয়ারি দেশজুড়ে সাধারণ ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে বাম শ্রমিক-কর্মচারী সংগঠনগুলি। এই ধর্মঘটকে সমর্থন জানিয়েছে কংগ্রেসও। মূলত, কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের নীতির বিরোধিতা হলেও এরাজ্যে শ্রমিক-বিরোধী নীতি ও কর্মসংস্থানের বেহাল দশাকেও ধর্মঘটের ইস্যুতে যুক্ত করেছে তারা। এর পাশাপাশি নাগরিকত্ব আইন বাতিল, এনআরসি ও এনপিআরের বিরোধিতার ইস্যুকেও ধর্মঘটের সঙ্গে যুক্ত করেছে।

এই ধর্মঘট সফল করার লক্ষ্যে দীর্ঘদিন ধরেই প্রচার চালাচ্ছে বামেরা। কিন্তু শেষ সাতদিনে প্রচারকে তুঙ্গে নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা নিয়েছেন বাম নেতৃত্ব। সেই লক্ষ্যেই রাজ্য তথা দেশে ভয়াবহ বেকারি, শ্রমিক ছাঁটাই, রাষ্ট্রায়ত্ত লাভজনক সংস্থাকে বেসরকারি হাতে তুলে দেওয়ার চেষ্টা, দাবি-দাওয়া নিয়ে কর্মচারীদের প্রতিবাদ রুখতে দমনপীড়ন সহ নানা ইস্যুতে এরাজ্যে নতুন বছরের প্রথম থেকেই সপ্তাহব্যাপী প্রচারে রাস্তায় থাকবেন বাম কর্মী সমর্থকরা। সপ্তাহব্যাপী এই প্রচার শুরু হবে আগামী ২ জানুয়ারি কলকাতায় ধর্মতলা থেকে কেন্দ্রীয় মিছিলের মাধ্যমে। এতে দক্ষিণবঙ্গের একাধিক জেলার প্রতিনিধিরা অংশ নেবেন। যোগ দেবে ব্যাঙ্ক, বিমা, প্রতিরক্ষা, রেল, বিএসএনএল কর্মচারী সংগঠনগুলি। থাকবেন ছাত্র, যুব, মহিলা, কৃষক, খেতমজুর, বস্তি ইউনিটের বাম সদস্যরা।

এদিকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বামেদের ডাকা এই ধর্মঘটের বিরোধিতা করার কথা ঘোষণা করেছেন। সে প্রসঙ্গে আগেভাগেই হুশিয়ারি দিয়ে রেখেছেন সিপিএম রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র। মঙ্গলবার ক্ষিতি গোস্বামীর স্মরণসভায় গিয়ে তিনি হুশিয়ারি দিয়ে বলেন, ‘এরাজ্যে ধর্মঘট সফল করার ক্ষেত্রে তৃণমূল সরকারের পুলিশ বাধা দিতে এলে তার পরিণামের জন্য তৈরি থাকতে হবে।’

sweta

Related Articles

Back to top button
Close