fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

৯ দফা দাবিতে পঞ্চায়েত অফিস ঘেরাও করে সিপিএমের কৃষক সভার বিক্ষোভ

শুভেন্দু বন্দোপাধ্যায়, আসানসোল: সিপিএমের সারা ভারত কৃষক সভা সালানপুর ব্লক কমিটির তরফে সোমবার ৯ দফা দাবি নিয়ে দেন্দুয়া গ্রাম পঞ্চায়েত অফিস ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখানো হয়। পরে পঞ্চায়েতের প্রধান ও উপ প্রধানের হাতে ৯ দফা দাবির একটি স্মারকলিপি তুলে দেওয়া হয়। এই প্রসঙ্গে সিপিএম নেত্রী শিপ্রা মুখোপাধ্যায় বলেন, বর্তমানে রাজ্যের কৃষক ও শ্রমজীবি মানুষেরা চরম দুর্দশার মধ্যে আছেন। সেই কারণে কৃষক সভার তরফে এদিন পঞ্চায়েত অফিসে স্মারকলিপি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

দাবিগুলোর মধ্যে আছে পঞ্চায়েত এলাকায় সমস্ত গরীব মানুষের প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনায় পাকা ঘর নির্মাণ করতে হবে৷ গৃহ নির্মাণে কোনরকম দুর্নীতি করা চলবে না। সব জায়গায় ১০০ দিনের কাজ চালু করতে হবে। দৈনিক ৩০০ টাকা করে মজুরি দিতে হবে। ১০০ দিনের কাজকে কৃষি কাজের সঙ্গে যুক্ত করতে হবে ও কাজের টাকা সময় মতো দিতে হবে। পঞ্চায়েত অফিস থেকেই এলাকার কৃষকদের থেকে ধান কেনার ব্যবস্থা করতে হবে। সমস্ত পরিবারকে ডিজিটাল রেশন কার্ড দিতে হবে। সমস্ত গরীব মানুষদের মাথাপিছু ১৫ কেজি চাল/গম, ডাল, ভোজ্যতেল, আলু ও মশলা দেওয়ার ব্যবস্থা করতে হবে। সব পরিবারের বিদ্যুৎ বিল ২০০ ইউনিট পর্যন্ত মুকুব করতে হবে। ৬০ বছরের উর্ধ্বে সমস্ত গরীব মানুষদের বার্ধক্য পেনশন দিতে হবে। এলাকার সমস্ত রাস্তা মেরামতের ব্যবস্থা করতে হবে।

তিনি আরও বলেন, তৃণমূলের লোকেরা এদিনের আন্দোলন ভেস্তে দেওয়ায় চেষ্টা করেছে৷ গ্রামে গ্রামে লোক পাঠিয়ে গরীব মানুষদের মিছিলে আসতে দেওয়া হচ্ছে না। তাছাড়া গুন্ডা পাঠিয়ে তাদের ভয় দেখানোর চেষ্টা করা হয়েছে। আমরা এই সবকিছুকে ভয় পাইনা। কারণ সাধারণ মানুষ আমাদের পাশে রয়েছেন। এর জবাব সাধারণ মানুষ ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনে দেবেন। এদিন অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিপিএম নেতা অশোক বন্দোপাধ্যায়, মেঘনাথ বন্দোপাধ্যায় ,কৃষক নেতা গিরিশ টুডু, গণেশ পন্ডিত, সুনীল মণ্ডল।

Related Articles

Back to top button
Close