fbpx
দেশহেডলাইন

‘কিডন্যাপ’ হল কুমির, দিতে হবে মুক্তিপণ, উত্তাল এই রাজ্য

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: এও সম্ভব! একটি কুমিরকে ঘিরে উত্তাল হল উত্তরপ্রদেশের প্রত্যন্ত গ্রাম মিদানিয়া। সংরক্ষিত অরণ্যের লাগোয়া গ্রাম মিদানিয়া। সেই গ্রামেরই একটি পুকুরে দেখা যায় একটি কুমির ওঁত পেতে বসে আছে।

এদিকে মুহূর্তের মধ্যে ভিড় জমে যায় কুমিরটিকে দেখার জন্য। গ্রামবাসীরাই মিলিতভাবে কুমিরটিকে ধরেন। সঙ্গে সঙ্গে খবর দেওয়া হয় বন দফতরে। এরপর বনকর্মীরা আসেন কুমিরটিকে উদ্ধার করতে। এই বারেই শুরু অশান্তি৷ গ্রামবাসীদের দাবি, কুমিরটির বিনিময়ে তাদের ৫০ হাজার টাকা দিতে হবে। টাকা দিলে তবেই কুমিরটিকে তাঁরা বন দফতরের হাতে তুলে দেবে।

                    আরও পড়ুন : বিজেপি বিধায়কের মৃত্যুর ঘটনায় চার্জশীট পেশ CID-র

এ বিষয়ে নিকটবর্তী দুধাওয়া ব্যাঘ্র সংরকক্ষণ প্রকল্পের দায়িত্বে থাকা স্থানীয় বনবিভাগের আধিকারিক অনিল প্যাটেল জানান, স্থানীয়রা কুমিরটিকে ধরে৷ বন দফতর উদ্ধার করতে গেলে ৫০ হাজার টাকা দাবি করে বসে। এরপর বনকর্মীদের বেশ কয়েক ঘণ্টা কেটে যায় গ্রামবাসীদের বোঝাতে। ডাকতে হয় স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনকে। স্থানীয় পুলিশ ও কর্তৃপক্ষের মধ্যস্থতায় কুমিরটিকে শেষপর্যন্ত উদ্ধার করা যায়। এদিকে একসময় গ্রামবাসীদের আইনি পদক্ষেপের ভয় দেখিয়ে বলা হয়, এই অপরাধের জন্য তাদের ৭ বছর পর্যন্ত হাজতবাস হতে পারে। অনিল প্যাটেলের কথায়, ‘গ্রামবাসীদের আসলে ধারণাই নেই যে বন্যপ্রাণ সংরক্ষণ আইন অনুযায়ী কুমির একটি সংরক্ষিত বন্যপ্রাণী। আমাদেরই উচিত বন্যপ্রাণ সম্পর্কে তাদের সচেতন করে তোলা।’

উদ্ধারের পর 8 ফুট দৈর্ঘ্যের কুমিরটিকে ওই দিনই ঘাগরা নদীতে ছেড়ে দেওয়া হয়। বনকর্মীদের মতে, গত মঙ্গলবার ভারী বৃষ্টিপাতের ফলে যে বন্যা হয়, তার জন্য সংরক্ষিত অঞ্চল থেকে কুমিরটি গ্রামে ঢুকে

 

Related Articles

Back to top button
Close