fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

দুয়ারে দুয়ারে কর্মসূচিতে থিকথিকে ভিড়… পদপিষ্ট হয়ে জখম বেশ কয়েকজন, উত্তেজনা

জেলা প্রতিনিধি, কালনা: দুয়ারে সরকারের ক্যাম্পে থিকথিকে জনতার ভিড়ে পদপিষ্ট হয়ে আহত হলেন বেশ কয়েকজন।পূর্ব বর্ধমানের পূর্বস্থলীতে এই দুর্ঘটনার পরেই ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ায়।ঘটনার পরেই আহতদের স্থানীয় চাঁদপুর ও কালনা মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কমবেশি আহত ব্যক্তিদের প্রাথমিক চিকিৎসা করে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। আর এইরকম এক ঘটনার পরেই নিন্দার ঝড় তুলে আহতদের পাশে দাঁড়িয়ে বিরোধী নেতৃত্বরা প্রশাসনের গাফিলতিকেই কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছেন। ভিড়ের চাপ সামলাতে না পারার কারণেই বিশৃঙ্খল পরিস্থিতির জন্যই পদপিষ্টের মতো ঘটনা ঘটেছে বলেই তাদের অভিযোগ।যদিও এই অভিযোগকে অস্বীকার করেছেন তৃণমূল নেতৃত্ব।

পূর্বস্থলী ১ নম্বর ব্লকে নসরতপুরের পারুলডাঙ্গা উচ্চবিদ্যালয়ে দুয়ারে সরকারের ক্যাম্পের আয়োজন করা হয়। আর সেই কারণেই মঙ্গলবার সকাল হতেই ওই স্কুলের সামনে রাস্তার উপর হাজার-হাজার মানুষকে লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। স্থানীয়রা জানান, ‘এইদিন সকাল দশটার সময় স্কুলের সেই ক্যাম্পের দরজা খুলতেই হুড়মুড়িয়ে লোক ভেতরে ঢুকতে যায়। আর তখনই পড়ে গিয়ে একে অপরের দ্বারা পদপিষ্ট হোন। এই ঘটনায় কমবেশি আহত হয়েছেন অনেকেই। তার মধ্যে গুরুতর আহত বয়স্ক মহিলা, বাচ্ছা সহ পাঁচজনকে স্থানীয় চাঁদপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। একজনকে কালনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন তাজউদ্দিন সেখ নামে আহত এক ব্যক্তি বলেন, ‘প্রচুর ভিড় হয়েছিল।স্বাস্থ্যসাথী কার্ড করার জন্য লাইনে দাঁড়াই। গেট খুলতেই হুড়োহুড়ি পড়ে গিয়ে দুর্ঘটনাটি ঘটে। সেই ঘটনায় পড়ে গিয়ে গুরুতর জখম হই।’ অন্যদিকে চাঁদপুর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সত্তরোর্ধ ও ষাটোর্ধ আহত বয়স্কদেরও ভর্তি করা হয়। নিসারানী বেওয়া,নজু বিবি,মাচু বেওয়া সেখ,আজিয়া বেগম,খাদিজা খাতুন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। আর এই ঘটনার পরেই চরম অব্যবস্থার অভিযোগ তুলে সরব হন আহতদের আত্মীয়রা।পাশাপাশি বিজেপি নেতৃত্বও এই ঘটনায় নিন্দায় সরব হোন।

এই বিষয়ে পূর্বস্থলীর বিজেপি নেতা বিপ্লব বসাক বলেন, ‘দুয়ারে সরকারের এই কর্মসূচিতে চরম অব্যবস্থার জন্যই বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।এইকারণেই পদপিষ্টের মতো ঘটনা ঘটেছে। খুবই দুঃখজনক ঘটনা।বয়স্কা মহিলা সহ বাচ্ছারাও ঘন্টার পর ঘন্টা লাইনে দাঁড়িয়ে রয়েছেন এইরকম ছবিই এইদিন ধরা পড়ে।তার উপর ব্যাপক ভিড় আর গেট খুলতেই অব্যবস্থার কারণেই পদপিষ্টের মতো ঘটনা ঘটেছে।আমরা এর ধিক্কার জানাই।এই কর্মসূচি দুয়ারে সরকার নয়,জনগণকে যমের দুয়ারে পাঠানোর ব্যবস্থা করেছে।’ যদিও স্থানীয় তৃণমূল নেতা দিলীপ মল্লিককে ফোন করা হলে তিনি বলেন‘ পরে ফোন করে কথা বলছি।’ অন্যদিকে এমন কোনও ঘটনা ঘটেনিই বলে জানান কালনার মহকুমাশাসক সুমন সৌরভ মোহান্তি।এই বিষয়ে তিনি বলেন, ‘এমন কোনও ঘটনাই ঘটেনি। শান্তিপূর্ণভাবেই দুয়ারে সরকারের কর্মসূচি হয়েছে।’

Related Articles

Back to top button
Close