fbpx
অন্যান্যপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বাড়িতে টবে ধনেপাতা চাষ

নিজস্ব প্রতিনিধি: গ্রামে-গঞ্জে শুধু চাষিভাইরা নন, শহরের এমন অনেক বাড়িতে পাওয়া যাবে যেখানে ছাদে কিংবা ব্যালকনিতে বাড়ির গৃহিণীরা মন দিয়ে বাগান করেন। বাগান মানে কিন্তু শুধুই ফুল নয়, তাতে টমেটো, লংকা, বেগুন, কুমড়ো, পালংশাক আরও কত কিছু যে তাঁরা বানিয়ে ফেলেন! রীতিমতো পড়াশোনা করে, গামলায় কিংবা টবে, নার্সারি থেকে বীজ কিনে কিংবা চারা কিনে, মাটিতে সার দিয়ে, যত্ন করে ছাদের বা ব্যালকনির বাগান ফলন্ত হয়ে ওঠে। আজ কৃষিকথায় তেমনই এক বাগানের ধনেপাতা ফলনের কথা।

আরও পড়ুন:পেরিয়ে গেছে একমাস, অপরিবর্তিত জ্বালানির দাম

দক্ষিণ কলকাতার সুনন্দা দেবী (নাম পরিবর্তিত) আমাদের জানালেন, বাড়িতে ধনেপাতার চাষ করতে গেলে প্রথমে নার্সারি থেকে ধনের বীজ কিনে ৭-৮ ঘন্টা ভিজিযে রাখতে হবে। সুনন্দা দেবীর কথায়, সারা রাত ভিজিযে রাখলেই ভালো। এরপর সকালে জল থেকে তুলে হাতের হালকা চাপে বীজগুলোকে দুটুকরো করে নিলে একটি বীজ থেকে দুটি চারা পাওয়া যাবে। এবার একটি ছিদ্রযুক্ত প্রমাণ আকৃতির চৌকো টব নিতে হবে। তাতে একদম নীচে কিছু স্টোনচিপ বা ইটের টুকরো দিতে হবে। এরপর জৈবসার মিশ্রিত মাটি দিযে টবটি ভর্তি করতে হবে।

তবে উপরের দিকে ৩-৪ ইঞ্চি ফাঁকা রাখতে হবে। মাটি তৈরির পর সারা রাত ভিজিয়ে রাখা বীজগুলি মাটির ওপর ছড়িয়ে দিতে হবে। এখানে বলে রাখা ভালো, বীজগুলো ছড়িয়ে দেওয়ার আগে টব থেকে কিছু মাটি তুলে রেখে লেবেল করে বীজ ছড়িয়ে তুলে রাখা মাটি দিয়ে সমস্ত বীজগুলিকে ঢেকে দিতে হবে। এবার ওপর থেকে অল্প অল্প জল ছড়িয়ে দিতে হবে। মনে রাখতে হবে টবের ওপরে যে কোনও বীজ দেখা না যায় এবং মাটি পুরো ভিজে থাকে। এইভাবে বীজ বপনের পর টবটিকে আলো-হাওয়া যুক্ত জায়গায় রাখতে হবে। ৮-৯ দিন পরে ওই বীজ থেকে ধনে চারা বেরোতে শুরু করবে।

আরও পড়ুন:বিধায়ক মৃত্যু মামলায় রাজ্য-কেন্দ্রকে সুপ্রিম নোটিশ, CBI-এর হাতে যাচ্ছে হেমতাবাদ তদন্ত?

সবগুলো বীজ থেকে চারা বেরোতে প্রায়১৬-১৭দিন সময় লাগে। চারা বেরিয়ে গেলে খুব সাবধানে জল দিতে হবে। লক্ষ্য রাখতে হবে যে চারাগুলি নুয়ে না যায়। এই সময় আলো-হাওয়া যুক্ত স্থানে টবটিকে রাখলেও নজর রাখতে হবে যে খুব কড়া রোদ না পড়ে, কারণ কড়া রোদ ধনে গাছের পক্ষে ক্ষতিকারক। বীজ লাগানোর ৩৫-৩৭ দিনের মাথায় ঘন সবুজ বড় বড় পাতাযুক্ত ধনে গাছ পাওয়া যাবে। গোড়া থেকে না তুলে যদি ওপর থেকে ধনেপাতাকেটে নেওয়া যায় তাহলে ওই গাছগুলিই আবার বড় হয়ে নতুন ধনেপাতা দেবে।

এইভাবে একবারের বীজ থেকে ৩-৪ বার ধনেপাতার ফলন আপনি পেতে পারেন। সাধারণত বাড়ির বাগানে টবে ধনেপাতা চাষ করলে সারের প্রয়োজন হয় না। তবু যদি মনে করেন সার ব্যবহার করবেন তবে মাটির সঙ্গে জৈবসার রূপে গোবর সার ৫০ শতাংশ কিংবা ভার্মিসার ৩০ শতাংশ মেশাতে পারেন। আর যদি রাসাযনিক সার ব্যবহার করতে চান তাহলে হাফ মগ জলে হাউ চামচ ইউরিয়া ও ডিএপি মিশিয়ে সেটি গাছের গোড়ায় দিতে পারেন। এইভাবে আপনি নিজেই বাড়িতে ধনেপাতা ফলিয়ে যেন রান্নাতে ব্যবহার করতে পারেন। বানাতে পারেন সুস্বাদু ধনেপাতার চাটনি এবং বড়াও।

Related Articles

Back to top button
Close