fbpx
দেশহেডলাইন

৩৭০ ধারা বাতিলের বর্ষপূর্তিতে জঙ্গি হামলার আশঙ্কা, উপত্যকায় জারি কারফিউ

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: আবারও অশান্তির কালো মেঘ ঘনাচ্ছে জম্মু ও কাশ্মীরে। আগামী ৫ আগস্ট ৩৭০ ধারা বাতিলের বর্ষপূর্তিতে শ্রীনগরে হিংসাত্মক বিক্ষোভ দেখানোর ছক করেছে বিচ্ছিন্নতাবাদীরা। গোয়েন্দা সূত্রে এই খবর পাওয়ার পরে হাই অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে উপত্যকায়। চূড়ান্ত সতর্ক শ্রীনগর প্রশাসন। সোমবারই তড়িঘড়ি জারি করা হয়েছে কারফিউ।

জানা গিয়েছে, আগামী বুধবার পর্যন্ত এই কারফিউ জারি থাকবে। এ ছাড়াও কোভিড বিধিনিষেধের সময়সীমা ৫ আগস্ট থেকে বাড়িয়ে ৮ অগস্ট করা হয়েছে। উল্লেখ্য, গতবছর ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ ধারা এবং ৩৫(এ) ধারা বাতিল করে নরেন্দ্র মোদী সরকার। এই দুই ধারা অনুসারে প্রায় সাত দশক জম্মু ও কাশ্মীর বিশেষ ক্ষমতা ভোগ করে আসছিল। গত বছরের ৫ অগস্ট তারিখে জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ ক্ষমতা বাতিল করা হয়।

গোয়েন্দা সূত্রে পাওয়া তথ্য অনুসারে, আগামী ৫ অগস্ট ৩৭০ ধারা বাতিলের বর্ষপূর্তিতে কাশ্মীরজুড়ে ‘কালা দিবস’ পালনের পরিকল্পনা করেছে বিচ্ছিন্নতাবাদী এবং পাক মদতপুষ্ঠ বিভিন্ন গোষ্ঠী। বিশেষত শ্রীনগরে হিংসাত্মক বিক্ষোভের মাধ্যমে অশান্তি ছড়ানোর মতলব করেছে তারা। এই খবর পাওয়ার পরে স্বভাবতই বিশেষ তৎপরতা শুরু হয়ে যায় প্রশাসনের অন্দরে। সম্ভাব্য অশান্তির আশঙ্কায় কারফিউ জারি করেন শ্রীনগরের জেলাশাসক শাহিদ চৌধুরী।

সরকারি ওই নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, ‘৫ অগস্ট শহরে হিংসাত্মক বিক্ষোভের সুনির্দিষ্ট খবর পাওয়া গিয়েছে। যার ফলে সাধারণ মানুষের জীবন ও সম্পত্তিহানীর আশঙ্কা আছে। এই রিপোর্টের পরিপ্রেক্ষিতে সম্ভাব্য হিংসা আটকানো এবং জীবন ও সম্পত্তি রক্ষায় অবিলম্বে জেলায় কারফিউ জারি করা হচ্ছে।’ খুব জরুরি প্রয়োজন ছাড়া জেলাজুড়ে সাধারণ মানুষের চলাচলের উপরে সম্পূর্ণ নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। বন্ধ থাকবে সমস্ত ধরনের জমায়েত।

 

 

 

Related Articles

Back to top button
Close