fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

সাত দিনের বেশি সময় ধরে রান্নার গ্যাস না পেয়ে প্রশাসনের দ্বারস্ত গ্রাহকরা

নিজস্ব সংবাদদাতা, দিনহাটা:  সাত দিনের বেশি সময় ধরে রান্নার গ্যাস না পেয়ে প্রশাসনের দ্বারস্ত হল  গ্রাহকরা। কেউ এক সপ্তাহ  আবার কেউ এরও বেশি দিন ধরে ঘুরে যাচ্ছেন রান্নার গ্যাসের জন্য। সরকারিভাবে যখন বারংবার ঘোষণা করা হচ্ছে রান্নার গ্যাসের কোন সংকট নেই তখন দিনহাটায় প্রায়ই এই সংকট দেখা দিচ্ছে বলে অভিযোগ। আর এর ফলে নানাভাবে সমস্যায় পড়ছেন গ্রাহকদের একটি অংশ। ক্ষুব্ধ গ্রাহকরা বুধবার  মহকুমা শাসকের দ্বারস্থ হইয়।

অবিলম্বে তাঁরা সমস্যা সমাধানের দাবিতে সরব হন। মহকুমা প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, গ্রাহকদের অভিযোগ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। পাশাপাশি সরবরাহ যাতে দ্রুত স্বাভাবিক হয় সেটাও দেখা হবে। এদিন গ্রাহকদের বিমল চন্দ্র ভৌমিক, নিবারণ দেবনাথ, সন্তবাণী মহন্ত, বিমল ঘোষ, তপন কুমার দে প্রমুখরা মহকুমা প্রশাসনের আধিকারিক এর সাথে দেখা করে তাদের এই সমস্যার কথা তুলে। এদের কারোর বাড়ি ভাগ্নি এলাকায় আবার কারোর বাড়ি মহকুমার অন্যত্র। রান্নার গ্যাসের জন্য আগাম বুকিং করেও না পেয়ে এভাবে তাদের ঘুরে যেতে হচ্ছে বলে অভিযোগ। দিনহাটা শহরের মদনমোহন বাড়ি এলাকায় রয়েছে রান্নার গ্যাসের ডিস্ট্রিবিউশন কেন্দ্র। সেখান থেকে শহর ও শহরতলীর ছাড়াও মহকুমার বিভিন্ন এলাকায় রান্নার গ্যাস সরবরাহ হয়। প্রায়ই সরবরাহ নিয়ে অভিযোগ ওঠে। গত কয়েকদিন ধরে সেখান থেকে গ্রাহকরা গ্যাস পাচ্ছেন না বলে অভিযোগ। এমনকি সেখানে দুইটি মোবাইল নম্বর দেওয়া হলেও গ্রাহকদের ফোন পর্যন্ত ধরা হচ্ছে না। রান্নার গ্যাস না পেয়ে অনেকেরই পারিবারিক সমস্যায় পড়েছেন বলেও অভিযোগ।

আরও পড়ুন- এই নির্দিষ্ট তারিখের মধ্যেই আধার ও প্যান সংযুক্তিকরণ করতে হবে, জানিয়ে দিল কেন্দ্র

এদিন মহকুমা শাসকের কাছে অভিযোগ জানাতে আসা এক গ্রাহক  বলেন যে, রান্নার গ্যাস না থাকায় বাড়িতে স্ত্রীর কথা শুনতে হচ্ছে। আবার গ্যাসের দোকানে এসে দেখি  দোকান বন্ধ থাকছে। কয়েকদিন ধরে তারা এসে ঘুরে যাচ্ছেন। ডিসট্রিবিউশন কেন্দ্রের কাউকে না পেয়ে এমনকি ফোনেও যোগাযোগ করতে না পেরে কোনওরকম সুরাহা  হচ্ছে না। এদিকে রান্নার গ্যাসের দিনহাটা শহরের ডিস্ট্রিবিউটরের দুই পক্ষের গন্ডগোলকে ঘিরে প্রায়ই এই ঘটনা ঘটছে বলে গ্রাহকদের অনেকেরই অভিযোগ। অনেকেই দাবি তুলেছেন অবিলম্বে এই  ডিস্ট্রিবিউশন পয়েন্ট বন্ধ করে দেওয়া হোক। অনেকেই বলেন দিনহাটা মহকুমার বিভিন্ন গ্রাম এলাকায় একাধিক  ডিস্ট্রিবিউশন পয়েন্ট হয়েছে। কোথাও রান্নার গ্যাসের সংকট বা সমস্যা নেই। তাহলে কেন দিনহাটা শহরে এই সমস্যা প্রায়ই হচ্ছে তা নিয়ে তারা প্রশ্ন তোলেন।

গ্রাহকদের বিমল চন্দ্র ভৌমিক বলেন,”বাড়িতে রান্নার গ্যাস শেষ হয়েছে কয়েকদিন ধরে। ইতিমধ্যে নিয়ম অনুযায়ী বুকিং করেছেন। কিন্তু ছয় সাত দিন ধরে এসে ঘুরে যাচ্ছেন। একদিকে দোকান বন্ধ অন্যদিকে মোবাইল বন্ধ থাকায় হয়রানি হতে হচ্ছে। বাধ্য হয়ে এ দিন মহকুমা শাসকের দ্বারস্থ হন।” এ নিয়ে সংশ্লিষ্ট গ্যাস ডিস্ট্রিবিউটরের পক্ষে জয়ন্ত রায় বলেন,”প্ল্যান্টে কিছু সমস্যা হয়েছে। যার ফলে গ্যাস সরবরাহে ব্যাঘাত ঘটে। সমস্যা সমাধানের চেষ্টা চলছে। খুব শীঘ্রই সমস্যা মিটে যাবে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।” বিষয়টি নিয়ে দিনহাটা মহকুমা প্রশাসনের ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেট প্রলয় মন্ডল বলেন,”রান্নার গ্যাস না পেয়ে বেশ কয়েকজন গ্রাহক লিখিত অভিযোগ জানিয়েছেন। তাদের অভিযোগ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। পাশাপাশি এই সমস্যা যেতে আগামীতে না হয় সেটাও গুরুত্ব সহকারে দেখা হচ্ছে।”

Related Articles

Back to top button
Close