fbpx
কলকাতাবিজ্ঞান-প্রযুক্তিহেডলাইন

বাংলায় সাইবার আইন সহজ আত্মস্থকরণে অ্যাপস বানালেন বাঙালি আইনজীবী

অভীক বন্দ্যোপাধ্যায়, কলকাতা: গত কয়েক বছর ধরেই সারা বিশ্বের সঙ্গে দেশ তথা রাজ্যেও বিপুল হারে বেড়েছে সাইবার দুনিয়ার দাপট। আর তার সঙ্গে বেড়ে চলেছে সাইবার দুনিয়ায় অপরাধের মাত্রাও। বেশির ভাগ মানুষের কাছেই সাইবার প্রতারণার বিষয়ে সঠিক জ্ঞান নেই। তাই সোশ্যাল মিডিয়া থেকে ইন্টারনেটের দুনিয়ায় তারা যাতে জান্তে বা অজান্তে প্রতারণা না করেন বা প্রতারিত না হন, তার জন্যই পশ্চিমবঙ্গের অন্যতম সাইবার আইনজীবী বিভাস চট্টোপাধ্যায় এবার বানিয়ে ফেললেন বাংলায় ‘সাইবার আইন অ্যাপস।’

 

 

লকডাউনে গৃহবন্দী মানুষের অনেকটা সময় দখল করে নিয়েছে সাইবার দুনিয়া। বিভিন্ন জিনিস জানতে বা কাজের জন্য বিভিন্ন জানা-অজানা সাইটে ঢুঁ মারছেন মানুষ। কিন্তু এগুলি সবকটিই কি সুরক্ষিত? সেই কারণেই সাইবার আইন সম্বন্ধে মানুষকে হালহকিকত জানাতে বাংলা ভাষায় সাইবার আইন নিয়ে অ্যাপস তৈরি করলেন বিভাসবাবু। লকডাউনেই দীর্ঘদিন পরিশ্রমের মাধ্যমে এই অ্যাপস বানিয়েছেন তিনি।

 

 

১২ মে থেকে গুগল প্লে স্টোরে ‘সাইবার ল ইন বেঙ্গলি’ লিখলেই মিলছে এই অ্যাপস। সম্ভবত এটিই রাজ্যে প্রথম বাংলা ভাষায় সাইবার আইনের অ্যাপস। সম্পূর্ণ বাংলা ভাষায় লেখা থাকার কারণে এই অ্যাপসে সাইবার আইন নিয়ে বুঝতে ও জানতে সাধারণ মানুষেরও সুবিধা হবে। সাইবার বিপদ বা অপরাধ সম্পর্কে আরও অভিজ্ঞ হতে পারবেন মানুষ।

 

 

জাভা’র ব্যবহারে তৈরি করা বাংলায় সাইবার আইন নামের এই অ্যাপসটিতে মূলত চারটি ভাগ রয়েছে। রয়েছে সাইবার জগৎ এবং তার আইন, তথ্য প্রযুক্তি আইন ২০০০, বিভিন্ন সাইবার অপরাধ এবং সেই সংক্রান্ত আইন এবং সাইবার আইনে কিভাবে মামলা রুজু হয় এবং মামলার তদন্ত চলে সেই সংক্রান্ত ইউটিউবে অনলাইন ভিডিওর একটি ফিচারও যোগ করা হয়েছে। সাইবার জগতের সঙ্গে কোন কোন আইন জড়িয়ে রয়েছে, তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রে সাইবার আইন কতটা ওতপ্রোতভাবে যুক্ত, সাইবার আইনে কোন অপরাধে কোথায় বিচার এবং কি সাজা এবং সর্বোপরি কি ভাবে সাইবার দুনিয়ায় সমস্যায় পড়লে সাইবার আইনের সাহায্য নিয়ে মামলা দায়ের করা যায়, তার তথ্য এখানে বিশদে তুলে ধরা হয়েছে।

 

 

প্রসঙ্গত, ইন্ডিয়ান পেনাল কোড থেকে সিআরপিসি বা ইন্ডিয়ান এভিডেন্স অ্যাক্ট নিয়ে একাধিক অ্যাপ রয়েছে। কিন্তু সাইবার আইন সম্বন্ধে কোনও অ্যাপস না থাকায় অজ্ঞতার কারণে অনেক গুরুতর অপরাধের ক্ষেত্রেও লঘু ধারা প্রয়োগের সম্ভাবনা থেকে যেত। সেই সমস্যা অনেকটাই পূরণ করে দেবে এই অ্যাপস।

 

 

ইতিমধ্যেই বাংলাদেশ, দুবাই-সহ দেশ-বিদেশের কয়েক হাজার মানুষ অ্যাপসটি ডাউনলোড করে ফেলেছেন। বিভাস চট্টোপাধ্যায়ের কথায়, ‘দেশ-বিদেশের প্রত্যেক বাঙালি সাইবার অপরাধ থেকে কিভাবে সতর্ক থাকবেন এবং সাইবার আইন সম্বন্ধে যাতে জানতে পারেন, তার জন্যই আমার এই অ্যাপ। আমার এই পরিশ্রম মানুষের উপকারে এলে নিজেকে ধন্য মনে করব।’

Related Articles

Back to top button
Close